মেইন ম্যেনু

তীব্র প্রতিবাদের মুখে দ্বিস্তর টেস্টের পরিকল্পনা বাতিল

তীব্র প্রতিবাদের মুখে শেষ পর্যন্ত দ্বিস্তর টেস্টের পরিকল্পনা নিয়ে পিছু হটল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

বুধবার দুবাইয়ে আইসিসির নির্বাহী কমিটির এক সভায় টেস্ট ক্রিকেটকে দুই স্তরে ভাগ করে ফেলার পরিকল্পনাটা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

এদিনের সভায় এই প্রস্তাব নিয়ে অবশ্য কোনো ভোটাভুটির প্রয়োজন পড়েনি। সব সদস্য সিদ্ধান্ত নেন, আপাতত এই প্রস্তাব নিয়ে এগোনোর প্রয়োজন নেই।

গত জুনে এডিনবরায় আইসিসির বার্ষিক সভায় এই প্রস্তাব একরকম পাসই হয়ে যেতে বসেছিল। তবে প্রথম থেকেই এর জোর বিরোধিতা করছিল বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। এই প্রস্তাবের বিপক্ষে ছিল জিম্বাবুয়েও।

তবে দ্বিস্তর টেস্টের পরিকল্পনাটা চাপা পড়ে গেল মূলত ক্রিকেটের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশ ভারতের বিরোধিতার মুখে। গত মাসে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিল, তারা এই প্রস্তাবের বিরোধী।

অধিকাংশ টেস্ট খেলুড়ে দেশ অবশ্য এই প্রস্তাবের পক্ষে ছিল। এই প্রস্তাবে রাজি ছিল অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পিছু হটল আইসিসি।

দ্বিস্তর কাঠামোয় প্রস্তাব করা হয়েছিল, দ্বিপক্ষীয় সিরিজ ভিত্তিক ক্রিকেটের বদলে খেলাটা হবে লিগ ভিত্তিক। দুটি স্তরে ভাগ হয়ে টেস্ট খেলবে ১২টি দেশ। থাকবে উত্তরণ ও অবনমনের ব্যবস্থা। প্রথম স্তরে থাকবে টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ সাত দল ও দ্বিতীয় স্তরে শেষ তিন দল। এই তিন দলের সঙ্গে দ্বিতীয় স্তরে যোগ হবে ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপের দুই ফাইনালিস্ট।

পরিকল্পনাটি বাদ পড়ায় স্বাভাবিকভাবেই খুশি বাংলাদেশ। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, ‘আমরা বেশ উচ্ছ্বসিত এবং তৃপ্ত। আমরা অন্যান্য সদস্যদের বোঝাতে পেরেছি যে, এ পদ্ধতি বাংলাদেশের ক্রিকেটে কতটা নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। আমাদের পরিস্থিতি বোঝার জন্য তাদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’






মন্তব্য চালু নেই