মেইন ম্যেনু

তুর্কি হ্যাকারের তিনশ’ বছরের জেল!

হ্যাক করে ১১ জনের ক্রেডিট কার্ড তথ্য চুরি করার অপরাধে এক তুর্কি যুবককে মোট ৩৩৪ বছরের জেল দিয়েছে আদলত। অনুর কোপচাক (২৬) এর বিরুদ্ধে দায়ের করা একাধিক মামলার রায় ঘোষিত হয়েছে সোমবার। ওইদিন তুরস্কের মারসিন জেলা দায়রা জজ সাইবার আইনের আওতায় তিনটি পৃথক মামলায় ১৩৫ বছরের কারাদন্ডের আদেশ দেন।

এরআগে ২০১৩ সালে গ্রেফতার হওয়া অনুরের বিরুদ্ধে পৃথক পৃথক আরো বেশ কয়েকটি মামলায় মোট ১৯৯ বছরের জেল হয়েছিলো।

কিশোর বয়স থেকেই হ্যাকিংয়ে পারদর্শী অনুর। সে ও তার বন্ধুরা মিলে বছরের পর বছর ধরে তুরস্কের বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ওয়েব সাইট হ্যাক করে আসছিলো। বিচারে গ্রেপ্তারের আগ পর্যন্ত তাদের হ্যাক করা ক্রেডিট কার্ড এবং ব্যাংক একাউন্ট থেকে চুরি করা সকল অর্থের দায়ভারও নিতে হয়েছে তাদের।

কমপক্ষে ৪৩ জন ব্যাংক গ্রাহকের অভিযোগের পর ২০১৩ সালে বিশেষ অভিযানে সনাক্ত করা হয় এই হ্যাকিং দলটিকে। সবচেয়ে বেশি ব্যাংক একাউন্ট হ্যাক করেছিলো অনুর। তাই ১২ জনের ওই হ্যাকরের দলটির মধ্যে সবচেয়ে বেশি সাজাও পেয়েছে অনুরই।

শুধু সাইবার আইন নয়, বরং চুরি, জালিয়াতি ও প্রতারণাসহ নানা অভিযোগে মোট ৩৩৪ বছরের কারাদন্ড হয়েছে তার।






মন্তব্য চালু নেই