মেইন ম্যেনু

তেহরানে সৌদী দুতাবাসে হামলার জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে ইরানকে

সম্প্রতি সৌদী আরবের অভ্যন্তরিন বিষয় নিয়ে ইরান অতিরিক্ত বাড়া বাড়ি করছে বলে মনে করেন গনতান্ত্রিক ইসলামী ঐক্যজোটের নেতৃবৃন্দ এবং তেহরানে সৌদী দুতাবাসে পরিকল্পিত হামলা ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবী করেন তারা।
২৫জানুয়ারী গনতান্ত্রিক ইসলামী ঐক্যজোটের প্রতিষ্টা বাষীকি উদযাপন কমিটির প্রস্তুতী সভায় দলের চেয়ারম্যান মাওলানা মাসউদুর রহমান বিক্রমপুরী এ সকল কথা বলেন। তিনি আরো বলেন ইরানের অতিরিক্ত বাড়া বাািড় সৌদী আরবের আভ্যন্তরিন বিষয়ে হস্তক্ষেপের সামিল। যা আন্তর্জাতিক আইনেরও সম্পুর্ন লঙ্ঘন। ইরানকে তার অতিরিক্ত বাড়া বাড়ি থেকে ফিরে আসতে হবে অন্যথায় বাংলাদেশে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারন করেন।
তিনি বলেন ইরানের মনেরাখা উচিত সৌদী আরব শুধু একটি দেশ নয় এটা সমগ্র মুসলিম জাহানের কলিজা। সৌদী আরবকে নিয়ে কোনরুপ সড়যন্ত্রকরা আর সমগ্র মুসলিম জাহানের সাথে সড়যন্ত্র করারই সামিল। সৌদী আরবের বিরুদ্ধে যেকোন দেশের পক্ষথেকে যে কোন ধরনের সড়যন্ত্র প্রতিহত করার জন্য বিশ্বের তৌহিদী মুসলমানরা প্রস্তুত রয়েছে।
যেকোন সড়যন্ত্র ইমানদারদের বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়ে তা প্রতিহত করবে। ইরানের প্রতি আহবান জানিয়ে তিনি বলেন সৌদী আরবের বিরুদ্ধে সড়যন্ত্র বন্ধ করুন এবং তেহরানে সৌদী দুতাবাসে পরিকল্পিত হামলা ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করুন অন্যথায় এর দাতভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে।। আমরা ইরানকে হুশিয়ার করে দিতে চাই মুসলমানদের কলিজায় আঘাত দিয়ে বাচতে পারবেননা। পৃথিবীর কোন শক্তি টিকতে পারেনাই আপনারাও পারবেননা ইনশা আল্লাহ।
অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দলের মহাসচিব ও মুফতি আতাউর রহমান মাদানী, প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা খলিফা মোহাম্মদ নুরুদ্দিন, হাফেজ মুফতি মাসুমবিল্লাহ, আলহাজ মোহাম্মদ কফিল উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা বেলায়েত হোসেন মিয়া, মাওলানা হাফেজ গোলাম মাওলা, মাওলানা আব্দুল জলিল, এডভোকেট শেখ মোহাম্মদ শাকিল, মুফতি মাহমুদ হাসান ও মাওলানা আসাদুজ্জামান প্রমুখ।

সংগঠনটির প্রচার সম্পাদক বাহাউদ্দিন সুজনের পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য সরবরাহ করা হয়েছে।

প্রেসবিজ্ঞপ্তি






মন্তব্য চালু নেই