মেইন ম্যেনু

দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নোয়াখালীসহ ৩ বাংলাদেশি নিহত

এম.এ আয়াত উল্যা, স্টাপ রিপোটার নোয়াখালী : চাঁদা না পেয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় আবরার হোসেন পাপ্পু (৫০) নামের এক বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করেছে ওই দেশের সন্ত্রাসীরা। এসময় আবরার হোসেন পাপ্পুর একজন দেহরক্ষী ও এক পথচারীও নিহত হয়েছে। সোমবার (২০ জুন) দিনগত রাতে লুসিকিসিকি শহরে পাপ্পু’র নিজ পেট্রোল পাম্পে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আবরার হোসেন পাপ্পু নোয়াখালী পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড সোনাপুর গ্রামের সেকান্তর আহমদের ছেলে। তিনি ৩ কন্যা সন্তারের জনক। বাকী দুইজনের নামপরিচয় জানা যায়নি। নিহতের মামাতো ভাই দেলোয়ার হোসেন জানান, গত ২৫ বছর ধরে দক্ষিণ আফ্রিকার লুসিকিসিকি শহরের নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছিলেন পাপ্পু। সর্বশেষ গত কোরবানি ঈদে বাড়ীতে আসেন তিনি। আফ্রিকায় বিভিন্ন সময় ওই দেশি সন্ত্রাসীরা তার কাছে চাঁদা দাবি করত। এর জের ধরে সোমবার রাতে নিজ প্রতিষ্ঠান পেট্রোল পাম্পে কাজ করছিলেন পাপ্পু। এসময় কয়েকজন সন্ত্রাসীর পাম্পে এসে পাপ্পুকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়লে তার মাথায় ও বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে তিনি এবং তার দেহরক্ষী ও এক পথচারী নিহত হয়। মঙ্গলবার সকালে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে পাপ্পুর বন্ধু মোসলেহ উদ্দিনের মাধ্যমে পাপ্পুর মৃত্যুর খবর বাড়ীতে পৌঁছলে পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। ছেলের শোকে কান্না করতে করতে বারবার মুর্চ্ছা যাচ্ছে তার মা সামছুন নাহার। প্রসঙ্গত, গত বছর একই প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হয় আবরার হোসেন পাপ্পুর ছোট ভাই টিপু।






মন্তব্য চালু নেই