মেইন ম্যেনু

দরিদ্র শিক্ষার্থীদের সহায়তায় হ্যাপির অনলাইন শপ

এবার অনলাইন শপ চালু করলেন আলোচিত মডেল নাজনীন আক্তার হ্যাপি। বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টের মাধ্যেম তিনি এতথ্য জানিয়েছেন।

হ্যাপি বলেছেন, ‌‘যারা আমাকে পছন্দ করেন তাদের জন্য কিছু কথা না বললেই নয়। আমি হঠাৎ করেই একটি অনলাইন শপ Happiest Shop চালু করেছি, যদিও নিজে হালাল ভাবে কিছু একটা করার পরিকল্পনা আগে থেকেই ছিল এবং এই কারণেই ছিল যাতে করে মানুষের সাহায্য করতে পারি ইনশাআল্লাহ!’

তিনি আরো বলেন, ‘বাবা মায়ের কাছ থেকে সবসময় টাকা নিয়ে তো দেওয়াই যাই কিন্তু এতে তো আর নিজে কষ্ট করে দেওয়ার যে আত্মার শান্তি তা আর পাবো না! তাই চিন্তা করেছি একবারেই কিছু টাকা নিয়ে সেটা দিয়ে কিছু একটা করে লাভের অংশ থেকে সাহায্য করার।’

তিনি বলেন, ‘নিজের লাভের জন্য ব্যবসা শুরু করিনি, আমার প্রয়োজনও ছিল না আলহামদুলিল্লাহ! শুধু সাহায্য করার উদ্দেশ্যে ব্যবসায়ে এগিয়ে আসা। অনেক ভাই-বোন আছেন যারা অনেক কষ্ট করে মাদ্রাসায় পড়ছেন, মাদ্রাসার বই কিনতে পারছেন না, বা বাচ্চাদের মাদ্রাসায় পড়াতে চাচ্ছেন কিন্তু টাকার জন্য পারছেন না বা কোনো দ্বীনি ভাই-বোন খুব কষ্টের মধ্য দিয়ে একবেলা খেয়ে না খেয়ে বেঁচে আছেন, তারা আমাকে একটু কষ্ট করে জানান, ইনশাআল্লাহ আমি আমার সাধ্যের মধ্যে চেষ্টা করবো।’

ফেসবুকে তিনি আরো লিখেছেন, ‘মাত্র তো শুরু করলাম একটু সময় লাগতে পারে হয়তো। আসল সাহায্য তো আমার আল্লাহই করবেন, আমি শুধু উসিলা হতে চাই। আলহামদুলিল্লাহ! আল্লাহ না চাইলে আমার কোনো ক্ষমতাই ছিলনা এই ক্ষুদ্র উদ্যোগও নেওয়ার। আমার জন্য দোয়া করবেন এই নগন্য বান্দীর এই ক্ষুদ্র চেষ্টা যেন আল্লাহ কবুল করেন।’

উল্লেখ্য, ক্রিকেটার রুবেলের সাথে সম্পর্কে জড়ানোর জটিলতা নিয়ে নিজেকে সমালোচনায় নিয়ে আসেন নাজনীন আক্তার হ্যাপি। অনেক ঘটনা আর সংবাদের জন্ম দিয়ে দীর্ঘদিন থেকে তিনি নিভৃতচারির জীবনযাপন করছেন বাদ দিয়েছেন শোবিজের কাজ। ধর্ম কর্মে মন দিয়েছেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই