মেইন ম্যেনু

দশ পদের খাবার দিয়ে আপ্যায়ন করা হয় চীনা প্রেসিডেন্টকে

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের দেওয়া শুক্রবারের (১৪ অক্টোবর) নৈশভোজে বঙ্গভবনে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবং তার সফরসঙ্গীদের মোট দশ পদের খাবার দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়।

প্রেসিডেন্টের প্রেস সেক্রেটারি জয়নাল আবেদীন জানান, মোট দশ পদের খাবার দিয়ে আপ্যায়ন করা হয় চীনা নেতাকে। এর মধ্যে ছিল কাচ্চি বিরিয়ানি, শামী কাবাবের মতো দেশি খাবার। তবে এর পাশাপাশি সিচুয়ান কায়দায় তৈরি চীনা খাবারও ছিল।

স্টার্টার হিসেবে ছিল পাপড় ভাজা, পুদিনার সস, চিকেন টিক্কা। দেশি মিষ্টিও পরিবেশন করা হয় নৈশভোজে। আরও ছিল রসগোল্লা।

ওই নৈশভোজে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়াও সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচ এম এরশাদ, স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী, প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা, মন্ত্রিসভার সদস্য এবং বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকেরা যোগ দেন।

এদিকে শনিবার সকাল ১০টার পর ভারতের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ কররেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। এর আগে সকাল ৯টার পরে জাতীয় স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে পৌঁছে স্বাধীনতাযুদ্ধে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান তিনি। এরপর ১ মিনিট নীরবতা পালন করেন।

গতকাল বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে তিনি এয়ার চায়নার একটি বিশেষ ফ্লাইটে কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেন থেকে ঢাকায় পৌঁছান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই