মেইন ম্যেনু

দাঁতের বয়স এক লাখ বিশ হাজার বছর

চীনের দক্ষিণাঞ্চলে বিজ্ঞানিরা সম্প্রতি প্রায় আশি হাজার থেকে এক লাখ বিশ হাজার বছরের পুরোনো কিছু দাঁত খুঁজে পেয়েছেন। বিজ্ঞানীদের কাছে মানব সম্প্রদায় আফ্রিকা থেকে সারা পৃথিবীময় ছড়িয়ে পড়ার যেই আনুমানিক সময়ের তথ্য যে ছিল; এই দাঁতগুলো সেই সময়ের চেয়েও পুরোনো। তাহলে নিঃসন্দেহে বলা যায়, সদ্য আবিষ্কৃত প্রাচীন দাঁতগুলো মানব অভিপ্রয়াণের সেই চিরায়ত সময়ের ধারণাকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে।

দাঁতগুলো চীনের হুনান প্রদেশের ডাওশিয়ান অঞ্চলের একটি পুরোনো গুহা থেকে আবিষ্কৃত হয়। মোট ৪৭ টি দাঁত পাওয়া যায় ওই গুহায়। গবেষকদল এই দাঁতগুলো ঠিক কত বছর আগের সে বিষয়ে প্রায় নিশ্চিত। তারা জানান, এগুলোর বয়স প্রায় আশি হাজার থেকে এক লাখ বিশ হাজার বছর।

2015_10_19_20_30_18_oa2Icd4qcUWB56GRcth7JPM7pKFHXq_original

এতদিন প্রতিষ্ঠিত ধারণা ছিল প্রায় পঞ্চাশ হাজার বছর আগে মানব সম্প্রদায় প্রথম আফ্রিকা থেকে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়া শুরু করে। এভাবেই সারা পৃথিবীতে মানব বসতি গড়ে ওঠে। কিন্তু এই আবিষ্কৃত দাঁতগুলো এটাই প্রমাণ করে যে এশীয় অঞ্চলে মানুষ আরও বহু বছর আগেই ছড়িয়ে পরেছিল। অর্থাৎ চীনের ওই অঞ্চলে প্রায় এক লাখ বছর পূর্ব থেকেই আমাদের পূর্বপুরুষেরা বসবাস করে আসছিলেন।

যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইকেল পেট্রাগ্লিয়া নামের একজন পত্নতত্ত্ববিদ একে আশ্চর্য্যজনক ঘটনা হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, গত এক দশকের মধ্যে এটাই এশিয়া থেকে পাওয়া কোনো গুরুত্বপূর্ণ প্রাচীন বস্তু যা মানুষের পৃথিবীর এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় স্থানান্তরিত হওয়ার ক্ষেত্রে নতুন প্রমাণ বহন করে।

2015_10_19_20_30_19_ZwWKNTNIlLJoYnbMcanfgOkqNMUMLl_original

বিশ্বে এখনও পর্যন্ত সর্বজন স্বীকৃত ধারণা যাকে বৈজ্ঞানিক ভাষ্যমতে ‘আওট অভ আফ্রিকা” অর্থাৎ ‘আফ্রিকার বাইরে’ বলে আখ্যায়িত করা হয়; আফ্রিকা থেকে মানব অভিপ্রয়াণ ঘটেছিল প্রায় পঞ্চাশ হাজার থেকে সত্তর হাজার বছর পূর্বে। কিন্তু এই দাঁতগুলো প্রমাণ করে লক্ষ বছর আগেও এখানে মানব বসতি ছিল। কিন্তু চীনের দাওশিয়ানের ওই অঞ্চলের মানুষের পৃথিবীর ঠিক কোন অঞ্চল থেকে আগমন ঘটেছিল তা সম্পর্কে কোনো তথ্য এখনও পর্যন্ত উদঘাটিত হয়নি। তবে গবেষকরা মুটামুটি নিশ্চিত যে এরা আফ্রিকা থেকেই এই অঞ্চলে আগমন করেছিল।

মানব বিবর্তনবাদের ধারাবাহিকতায় চীনের ওই অঞ্চলের মানুষগুলোর উদ্ভব তথা তাদের ভাগ্যে ঠিক কি ঘটেছিল তা দাঁতগুলোর ডিএনএ পরিক্ষার মাধ্যমেই পরিষ্কার হবে বলে জানিয়েছেন লিউ নামের ওই গবেষকদলের একজন। শুধু তাই নয় আরও অনেক প্রশ্নের জবাবই মিলবে তাতে। কেনই বা আফ্রিকা থেকে ইউরোপীয় অঞ্চলে না গিয়ে এশিয়াতে প্রথমেই তাদের আগমন ঘটেছিল তারও সঠিক উত্তর প্রত্যাশা করা যেতে পারে এই দাঁতগুলোর গবেষণালব্ধ ফলাফল থেকে।

2015_10_19_20_30_15_uv7dusldPFFSzUf5yduay7A1JyCBxb_original

বিজ্ঞানিরা জানিয়েছেন দাঁতগুলো যে শুধু মানুষেরই তা নয় বরং এগুলোর মধ্যে দানব প্রজাতির পান্ডা এবং আরও কয়েকটি বিলুপ্ত প্রজাতির প্রাণির দাঁতও রয়েছে বলে ধারণা করছেন তারা।

কয়েকদশক আগে চীনে পালকযুক্ত ৫০ ফুট দীর্ঘ ডাইনোসরের কঙ্কাল পাওয়া গিয়েছিল। বিজ্ঞানিরা বলছেন, এযাবৎ পর্যন্ত এশিয়া থেকে উদ্ধারকৃত প্রাচীন জীবাশ্মগুলো অনেক অজানা প্রশ্নেরই সমাধান দিয়েছে। এই সদ্য আবিষ্কৃত দাঁতগুলো থেকেও এশিয়া তথা এই গ্রহের মানব বিবর্তনের অনেক অজানা তথ্যই জানা যাবে।






মন্তব্য চালু নেই