মেইন ম্যেনু

দাঁড়িপাল্লা বাদ দিয়ে আইন সংশোধন করছে নির্বাচন কমিশন

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নির্বাচিনী প্রতীক ‘দাঁড়িপাল্লা’ বাদ দিয়ে জাতীয় সংসদ নির্বাচন বিধিমালা সংশোধন করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। খসড়া আইন তৈরি করে তা আইন মন্ত্রণালয়ে ভেটিংয়ের জন্য পাঠিয়েছে তারা। এ সংক্রান্ত অনুমোদন পেয়ে এসআরও নম্বর শিগগিরই প্রতীক তালিকার সংশোধিত গেজেট প্রকাশ হবে।

কোনো রাজনৈতিক দলের প্রতীক হিসেবে বা কোনো নির্বাচনে প্রার্থীর প্রতীক হিসেবে ‘দাঁড়িপাল্লা’ বরাদ্দ না করার এবং করা হয়ে থাকলে তা বাতিলে সুপ্রিম কোর্টের ফুলকোর্ট সভার সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে এ পদক্ষেপ নেয় ইসি।

রোববার ইসির সহকারী সচিব রৌশন আরা বেগম জানান, নির্বাচন পরিচালনা বিধিমালা ২০০৮ এর বিধি ৯ এর উপবিধি (১) এর ৩২ নম্বর ক্রমিক থেকে ‘দাঁড়িপাল্লা’ প্রতীক বাতিল করে প্রস্তাবিত খসড়া নির্বাচন কমিশনের অনুমোদিত হয়েছে।

আইন মন্ত্রণালয়ের ভেটিংয়ের জন্য লেজিসলেটিভ ও সংসদবিষয়ক বিভাগে এ সংক্রান্ত প্রস্তাবিত খসড়া প্রজ্ঞাপন পাঠিয়েছে ইসির আইন শাখা। মন্ত্রণালয় থেকে তা ফেরত এলে সংশোধিত আকারে প্রতীক তালিকার গেজেট করা হবে বলে জানান তিনি।

গত ১২ ডিসেম্বর সুপ্রিম কোর্টের ফুলকোর্ট সভায় সিদ্ধান্ত হয়, ‘দাঁড়িপাল্লা’ ন্যায়বিচারের প্রতীক হিসেবে সুপ্রিম কোর্টের মনোগ্রামে ব্যবহৃত হবে এবং কোনো ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও দলের প্রতীক হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না।

গত ১৩ ডিসেম্বরের এ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত ইসি সচিবালয়ে পাঠান সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার। এ পরিপ্রেক্ষিতে আজ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয় ইসি।






মন্তব্য চালু নেই