মেইন ম্যেনু

দাউদ ইব্রাহিমের ঘরে ৪০ কোটি টাকা চুরি

চুরি খোদ ডনের ঘরে! দাউদ ইব্রাহিমের ঘরে সিঁধ কাটল চোর। হাতিয়ে নিল ৪০ কোটি টাকা। খাস ডি কোম্পানিকে এমন বোকা বানানো দাউদ যে মোটেই মেনে নিচ্ছেন না। চোর ধরতে গোয়েন্দা লাগিয়েছেন তিনি। খবর : টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

নাম তার দাউদ ইব্রাহিম। ইন্টারপোলের মোস্ট ওয়ান্টেড তালিকার প্রথম সারিতেই রয়েছেন। মুম্বাই হামলার প্রধান মাথা দাউদের গায়ে লেগে রয়েছে গ্লোবাল টেররিস্টের তকমা।

তার মাদক পাচার চক্র জাল ছড়িয়েছে গোটা বিশ্বে। এ হেন ডনের ঘরেই আবার চুরি! চুরি আবার করেছে তারই এক অনুগামী। এ ঘটনায় কুখ্যাত ডি-কোম্পানির যে রীতিমত মাথা কাটা যাচ্ছে তা স্পষ্ট।

দাউদের ব্যবসা দেখাশোনার কাজে ভারত ও শারজায় ঘুরে বেড়াত ডি-কোম্পানির অন্যতম কর্মচারী খালিক আহমেদ।

নয়াদিল্লির একজনের কাছ থেকে ৪৫ কোটি টাকা নিয়েছিলেন তিনি। এর মধ্যে ৪০ কোটি টাকা হাওয়ালার মাধ্যমে বাইরে পাচার করে দেন।

বাকি ৫ কোটি টাকা ট্রান্সফার কস্ট হিসেবে খরচ হয়। খালিকের সঙ্গেই উধাও হয়ে যায় এই ৪০ কোটি। পাকিস্তানে দাউদের কাজকর্ম দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা জাবির মোতির সঙ্গে খালিক আহমেদের ফোনে কথাবার্তা ট্যাপ করেই সম্প্রতি এ চুরির বিষয়ে জানতে পেরেছ ভারতের গোয়েন্দা দপ্তর।

দাউদের ঘনিষ্ঠ সহযোগী রেজ্জাক ভাইয়ের নজরে প্রথম টাকা-পয়সার এই গরমিল নজরে পড়ে। চুরি ধরতে দিল্লি থেকে কানাডা গেছে দাউদের দুই নিজস্ব গোয়েন্দাও।

খালিক বর্তমানে মণিপুরে গা-ঢাকা দিয়ে রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। চুরি যাওয়া ৪০ কোটির মধ্যে ২০ কোটি পানামা ব্যাঙ্কে ট্রান্সফার করার কথা ছিল, বাকি ২০ কোটি দাউদের ব্যবসায় বিনিয়োগ করার কথা ছিল। যার কোনোটাই হয়নি।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই