মেইন ম্যেনু

দাম আরো বাড়বে, বন্ধ হবে পাইপলাইনে গ্যাস

জ্বালানির নিরাপত্তার স্বার্থে বাসাবাড়িতে পাইপলাইন গ্যাস বন্ধ করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। এজন্য সিলিন্ডার গ্যাস সহজলভ্য করা হবে বলে জানান তিনি।

একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে দেয়া সাক্ষাতকারে এ কথা বলেন তিনি।

গ্যাসের দাম বাড়ানো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নিরবিচ্ছিন্ন সরবরাহ নিশ্চিত করতে চলমান প্রক্রিয়া হিসেবেই গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে। আগামীতে আরো বাড়ানো হবে।

এখন আর লোডশেডিং নেই বলে জানান তিনি।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ভোক্তা পর্যায়ে গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়া হয়।

গ্যাসের দাম গড়ে ২৬.২৯ শতাংশ এবং বিদ্যুতের দাম গ্রাহক পর্যায়ে ২.৯৩ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে।

বিদ্যুতের ক্ষেত্রে ১ থেকে ৫০ ইউনিট পর্যন্ত ইউনিট প্রতি আগের দর অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে ৫০ থেকে ৭৯ ইউনিট খরচে ইউনিট প্রতি ২৭ পয়সা বেড়ে ৩.৫৩ টাকা থেকে ৩.৮০ টাকা করা হয়েছে।

এছাড়া গ্যাসের মাসিক বিল ২০০ টাকা বাড়িয়ে এক চুলার জন্য এখন ৬০০ টাকা এবং দুই চুলার জন্য ৬৫০ টাকা নির্ধারিত হয়েছে।

গৃহস্থালিতে মিটারভিত্তিক গ্যাসের বিল প্রতি ঘনমিটার ৫ টাকা ১৬ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৭ টাকা করা হয়েছে। গাড়িতে জ্বালানি হিসাবে ব্যবহৃত রূপান্তরিক প্রাকৃতিক গ্যাস বা সিএনজির দাম প্রতি ঘনমিটার ৩০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩৫ টাকা করা হয়েছে।

সার ও বিদ্যুৎ উৎপাদন ছাড়া সব ক্ষেত্রে গ্যাসের দাম বেড়েছে। বর্ধিত এই মূল্যহার আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হবে বলে বিইআরসি চেয়ারম্যান এ আর খান জানিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই