মেইন ম্যেনু

দিনাজপুরে লিঙ্গ কেটে নিয়ে দুর্বৃত্তরা উধাও!

শাহ্ আলম শাহী, দিনাজপুর থেকেঃ দিনাজপুরের বীরগঞ্জে মোঃ জসিম (২৯) নামে এক যুবকের লিঙ্গ কর্তন করে নিয়ে পালিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।

মোঃ জসিম উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের কালিনগর পাড়া গ্রামের মৃত মহসীন আলীর ছেলে এবং পেশায় সে একজন রাজমিস্ত্রি।

ঘটনাটি ঘটেছে রোববার রাত সাড়ে ১১টায় উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের কালিনগর পাড়া গ্রামে ।
মোঃ জসিমের স্ত্রী মোছাঃ শারমীন জানান, রাতে খাওয়া-দাওয়া সেরে দুজনেই ঘুমিয়ে পড়ি। হঠাৎ আমার স্বামীর আত্মচিৎকারে ঘুম ভেঙ্গে যায়। দ্রুত বাতি জ্বালিয়ে দেখি বিছানা রক্তাক্ত। তাৎক্ষণিক ভাবে প্রতিবেশীদের সহয়োগিতায় প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করি।

মোঃ জসিমের মা মোছাঃ জাহানার বেগম জানান, আমি পাশের ঘরে শুয়ে ছিলাম। রাতে ছেলের চিৎকারে ছুটে গিয়ে ছেলেকে রক্তাক্ত এবং ঘরের দরজা ভাঙ্গা দেখতে পাই। এ সময় অজ্ঞাত লোকজনকে পালিয়ে যেতে দেখি। এ ঘটনাটি জসিমের আগে’র স্ত্রী মোছাঃ মর্জিনা ঘটিয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

নিজপাড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল খালেক সরকার জানান, মোঃ জসিম রাজমিস্ত্রির কাজ করতে গিয়ে ৫ বছর পুর্বে পঞ্চগড় জেলার দেবিগঞ্জ উপজেলার ভাওলাগঞ্জ টকরাইভাষা গ্রামের জনৈক মোছাঃ মর্জিনা খাতুনকে বিয়ে করে। দীর্ঘদিন ধরে কোন সন্তান না হওয়ায় সংসারে দ্বন্দ্ব লেগেই থাকতো। গত ৩মাস পুর্বে উভয়ের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর ১মাসে পুর্বে কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় কাজ করতে গিয়ে মোছাঃ শারমীন নামে এক মেয়েকে বিয়ে করে। রোববার রাতে দুর্বৃত্ত দ্বারা তার লিঙ্গ কর্তন করে নিয়ে পালিয়ে যাবার ঘটনা ঘটে। বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। বিষয়টি মুটো ফোনে পুলিশকে অবহিত করেছি। তবে তার বিছিন্ন হওয়া লিঙ্গটি কোথাও পাওয়া যায়নি। ধারনা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা সেটি নিয়ে পালিয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

বীরগঞ্জ থানার ওসি মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন জানায়, স্থানীয় চেয়ারম্যান বিষয়টি আমাকে অবহিত করেছে। তবে এখন পর্যন্ত লিখিত কোন অভিযোগ পাইনি।






মন্তব্য চালু নেই