মেইন ম্যেনু

দিল্লিতে গো-মাংস উদ্ধারে হাস্যকর পুলিশি অভিযান

দিল্লির কেরালা হাউসে গরুর মাংসের তরকারি পরিবেশিত হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় এ খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ। কিন্তু তাদের হতাশ হয়েই ফিরতে হয়েছে। কেননা ওই পদটি গরুর নয়, মহিষের মাংস দিয়ে তৈরি করা হয়েছিল।

ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে গোহত্যা নিষিদ্ধ করার পর নানা অঘটন ঘটেই চলেছে। এ জের ধরে একাধিক হত্যার ঘটনা ঘটেছে। থেমে নেই সংঘাত ও বিতর্কও। তারপরও প্রশাসনের টনক নড়ছে না।

এই পুলিশি অভিযান নিয়ে যথারীতি বিরক্ত কেরালার মুখ্যমন্ত্রী ওমেন চণ্ডী। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন,‘অভিযানে নামার আগে দিল্লি পুলিশের আরো ধৈর্য ধরা প্রয়োজন ছিল। তারা উর্ধ্বতনদের সঙ্গে এ নিয়ে পরামর্শ করতে পারত।’ এ ঘটনায় দিল্লি পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে বিক্ষুব্ধ কেরলা সরকার।

সোমবার সন্ধ্যায় হিন্দু সেনা দলের এক কর্মী পুলিশকে ফোন করেন। তিনি জানান, দিল্লিতে কেরলার সরকারি অতিথিশালায় গরুর ফ্রাই তৈরি করা হয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে দলবল নিয়ে কেরলা হাউসে ছুটে গিয়েছিল পুলিশ। তবে ওই অভিযোগের কোনো প্রমাণ খুঁজে পায়নি।

এদিকে ওই পুলিশি অভিযানের পর আজ কেরলা হাইজের মেনু থেকে চারপেয়ে প্রাণীর মাংস বাদই দেয়া হয়েছে। তার বদলে রাখা হয়েছে শুধু মাছ আর মুরগীর মাংস ।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই