মেইন ম্যেনু

দীর্ঘদিন যৌনাকাঙ্ক্ষা ধরে রাখবে যেসব খাবার

‘সবাই তো সুখী হতে চায়, কেউ সুখী হয় কেউ হয় না।’ মান্না দে নেই। তবে তার গানটির আবেদন রবে যুগের পর যুগ। হয়তো সুর রইবে না, হারিয়ে যাবে তালও। তাই বলে সুখী হতে চাওয়া কিংবা সুখী হওয়ার আকাঙ্ক্ষা কি ফুরানোর মতো? সুখের নানান ভেদ। তবে আজকের বিষয় দাম্পত্যজীবন, সুখ প্রসঙ্গ তা ঘিরেই। দাম্পত্যজীবনে নারী-পুরুষের মধ্যে একে অন্যের প্রতি যে টানা বা ভালবাসা তার একটি বড় অংশই থাকে শারীরিক সম্পর্কের ওপর ভর করে। জৈবিক চাহিদা বললেও মন্দ হয় না। সোজাসাপ্টা বলতে গেলে, যৌনাকাঙ্ক্ষা। বয়সের সঙ্গে সঙ্গে কমে আসে জৈবিক এই চাহিদা। তবে আপনি চাইলে ধরেও রাখতে পারেন দীর্ঘদিন, এজন্য কিছু বিশেষ খাবার নিয়েই এবারের আয়োজন।

বিট: শীতের সবজি এখনো বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। বিট-গাজর ইত্যাদি সবজি পেতে এখনো কোনো ঝামেলা পোহাতে হবে না। প্রতিদিনই খেতে পারেন মেরুন আর কমলা রঙের এই দুই সবজি। নিয়ম করে বাজার থেকে বিট কিনে আনুন এবং প্রতিদিন খান। এটি যৌন উত্তেজন হরমোন বৃদ্ধির পাশাপাশি শরীরকে টক্সিন মুক্ত রাখতে সাহায্য করে।

স্ট্রবেরি: অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ স্ট্রবেরি নারী এবং পুরুষ উভয়ের যৌনাকাঙ্খা বৃদ্ধিতে সহায়ক। এটি পুরুষের শুক্রানুর উন্নয়নে ভূমিকা রাখে। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই ফলটি হৃদরোগীদের জন্যও উপকারী।

তরমুজ: গ্রীষ্মকালে তরমুজ খেতে সবারই ভাল লাগে। ফলটা দেখতে যেমন সুন্দর, গরমে শরীর ঠাণ্ডা করতেও এর তুলনা নেই। পানি সমৃদ্ধ এই ফলটি শুধুমাত্র শারীরিকভাবে নয়, মানসিকভাবেও আপনাকে রাখতে তরতাজা। প্রাকৃতিক ‘ভায়াগ্রা’ খ্যাত এই ফলটি যৌন উত্তেজক হরমোন বৃদ্ধিতে কতটা কার্যকরী তা মনে হয় নতুন করে বলতে হবে না।

বাদাম: প্রতিদিন এক মুঠো বাদাম আপনার রক্তে ক্ষতিকর চর্বি বা কম ঘনত্বের লিপিডের (এলডিএল) মাত্রা ৫ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে দিতে পারে। এ ছাড়া বাদাম খেলে পাবেন ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়ামসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ উপাদান, যা শক্তি জোগাবে সারা দিন। সেই সঙ্গে বাড়িয়ে দেবে যৌন শক্তিও। যৌন জীবনকে সুখী করতে জিঙ্ক, সিলেনিয়াম এবং ভিটামিন ই সৃমদ্ধ বাদামের জুড়ি নেই। উর্বরতা বাড়াতে সিলিনিয়াম বেশ কার্যকর। পুরুষদের যৌন উত্তেজক হরমোন বৃদ্ধিতে কাজ করে জিঙ্ক।

টমেটো: এই সবজিটি খেতে ভালবাসে না, এমন ব্যক্তির সংখ্যা কমই আছে। যৌন উত্তেজনা বাড়াতে পাকা টমেটো কাঁচা খান। শীতের এই সবজিটি প্রতিদিন নিয়ম করে খেয়ে নিন।

কলা: কলায় রয়েছে প্রচুর সোডিয়াম। যা শরীরকে সতেজ রাখতে সহায়তা করে। কলা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। যৌস সংসর্গের ক্ষেত্রে রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়াও সোডিয়াম যৌন উত্তেজক হরমোন বৃদ্ধিতে কাজ করে।

চকলেট: এক বাক্যে ছেলে-বুড়ো সবার প্রিয় খাবারের তালিকায় শীর্ষস্থানে রয়েছে চকলেট। চকলেট খাবেনই কিন্তু এর উপকারিতা সম্পর্কেও জানুন। ডার্ক চকলেট যেমন আপনার হৃদয়ের সুরক্ষা করবে সেভাবে সম্পর্কেরও সুরক্ষা করবে। নারী-পুরুষ সকলেরই যৌন উত্তেজক হরমোন বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা রাখে চকলেট।






মন্তব্য চালু নেই