মেইন ম্যেনু

দীর্ঘ ৭ বছর পর ছেলেকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত মা

দীর্ঘ ৭ বছর পর ছেলেকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন জন্মদাত্রী মা। সিলেটের বিয়ানীবাজারে নিখোঁজের ৭ বছর পর ছেলেকে ফিরে পেলেন মা। এসময় বাবা-মা ও আত্মীয়-স্বজনরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

কিশোর বয়সে হঠাৎ করে হারিয়ে যাওয়ার পর গত সোমবার তাকে পাওয়া যায় উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের টেকইকোনা গ্রামে।

অচেনা যুবকের সন্দেহজনক ঘোরাফেরা দেখে স্থানীয়রা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে সেখানকার এক আত্মীয় তাকে চিনতে পেরে বাড়িতে খবর দেন। খবর পেয়ে মা-বাবা ছুটে আসেন। তারা তাকে বাড়িতে নিয়ে যান।

ফিরে আসা যুককের নাম রুহুল আমিন। তিনি উপজেলার লাউতা ইউনিয়নস্থ বাইরগ্রামের সফির উদ্দিনের পুত্র।

রুহুল আমিন বলেন, আমি কোনো এক জাহাজে ছিলাম। সেখানে আমার পায়ে শিকল পরানো থাকতো। আর কিছু আমার মনে পড়ছে না।

জানা যায়, ২০০৯ সালের ১১ নভেম্বর রুহুল স্থানীয় বারইগ্রাম বাজারে যায়। এরপর সে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তার সন্ধান না পেয়ে পরদিন এ ব্যাপারে থানায় জিডি করেন স্বজনরা।

এতদিনে তার কোনো হদিস না পেয়ে পরিবারও আশা ছেড়ে দেয়। কিন্তু দীর্ঘ সাত বছর পর হঠাৎ করে তাকে পেয়ে বাবা-মা ও আত্মীয়-স্বজনরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

ছেলেকে বুকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েন মা। তাকে এক নজর দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে স্বজনরা ছুটে আসছেন।

বিয়ানীবাজার থানার ওসি জুবের আহমদ বলেন, এ যুবকের মানসিক সমস্যা রয়েছে। তার কথাবার্তা অসংলগ্ন। তার সঙ্গে কথা বলেছি, জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার কোনো আলামত পাওয়া যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই