মেইন ম্যেনু

দুর্নীতির মামলায় দোষী সাব্যস্ত শশীকলা

ভারতের তামিলনাড়ু অঙ্গরাজ্যের ক্ষমতাসীন দলের সাধারন সম্পাদক শশীকলা নটরাজনের বিরুদ্ধে আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন মামলার রায় ঘোষণা করেছে সুপ্রিম কোর্ট। দুর্নীতির এই মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন তিনি। ফলে তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সব পথ বন্ধ হয়ে গেল।

সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের পর চেন্নাই পুলিশের কাছে আত্মসমর্পন করতে হবে শশীকলাকে। এই মামলায় তাকে চার বছর কারাভোগ করতে হতে পারে।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় শশীকলার আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তির মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। চার বছর কারাভোগের মেয়াদ শেষে আরও ৬ বছর ভোটে লড়তে পারবেন না। তার মানে আগামি ১০ বছর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার জন্য লড়াই করতে পারবেন না শশীকলা।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন পন্নীরসেলভম। পরে তিনি দাবি করেন, শশীকলা তাকে জোর করে পদত্যাগ করতে বাধ্য করেছেন।

জয়ললিতার মৃত্যুর পর তার দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ বান্ধবী ৬১ বছর বয়সী শশীকলাকে দলের সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। তখন থেকেই শশীকলার মুখ্যমন্ত্রীর পদে অধিষ্ঠ হওয়াকে কেন্দ্র করে জল্পনা কল্পনা শুরু হয়েছিল। কিন্তু আজ আদালতের রায়ে সকল জল্পনার অবসান ঘটল।






মন্তব্য চালু নেই