মেইন ম্যেনু

দেওয়ানি মামলা নিম্ন আদালতে স্থানান্তর স্থগিত

সিভিল কোর্ট অ্যাক্ট সংশোধন করে দেওয়ানি মামলার আপিল নিম্ন আদালতে স্থানান্তর প্রক্রিয়া ৩ মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে সংশোধিত আইনের ধারা কেন বে-আইনি ও অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেছেন আদালত।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে আইন সচিব, সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল ও হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারকে উক্ত রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

১৮৮৭ সালের সিভিল কোর্টস অ্যাক্ট সংশোধন করে গত ১২ মে গেজেট জারি করে সরকার। সংশোধিত আইনের ৪ এর ৩ ধারা অনুযায়ী দেওয়ানি আদালতের বিচারিক এখতিয়ার বাড়ানো হয়েছে। এখন একজন সহকারী জজ ২ লাখের পরিবর্তে ১৫ লাখ, সিনিয়র সহকারী জজ ৪ লাখের পরিবর্তে ২৫ লাখ এবং জেলা জজ ৫ লাখের পরিবর্তে ৫ কোটি টাকা মূল্যমানের মামলা নিষ্পত্তি করতে পারবেন।

এ আইনের বিধান অনুসারে এখন ৫ লাখের ওপর থেকে ৫ কোটি টাকা মূল্যমানের যেসব দেওয়ানি মামলায় হাইকোর্টে আপিল হয়েছে, সেগুলো জেলা জজ আদালতে চলে যাবে। হাইকোর্টে এমন প্রায় ৯ হাজার আপিল বিচারাধীন রয়েছে। নতুন আইন অনুযায়ী যা এখন জেলা জজ আদালত নিস্পত্তি করবে।

সংশোধিত আইনের ৪ (৩) ধারা চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সাইদুল আলম খান, আব্দুল্লাহ আল সাঈদ ও ব্যারিস্টার শুভ্রতদেব হাইকোর্টে রিট করেন। সেই আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার এই আদেশ দেন আদালত।






মন্তব্য চালু নেই