মেইন ম্যেনু

দেখা মিলল বিরল প্রজাতির হাঙ্গরের!

আমাদের পৃথিবীতে অসংখ্য প্রজাতির প্রাণীর বসবাস। ভূমি ও জলে বিভিন্ন ধরণের প্রাণী বাস করে। সমুদ্রের নিচে অসংখ্য প্রজাতি রয়েছে। স্থলে বসবাস করে আমাদের মাঝে যে রকম অসুবিধা দেখা যায়, তেমনি জলে যে সকল প্রাণীর বসবাস সে সকল প্রাণীদেরও প্রতিকূল পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে চলতে হয়।

সমুদ্রের অসংখ্য প্রাণীদের মাঝে অনেক বিরল প্রাণী রয়েছে। এবার তেমনি এক বিরল প্রজাতির হাঙ্গরের দেখা মিলল। এই হাঙ্গরকে ‘ফলস ক্যাট সার্ক’ নাম দেয়া হয়। বাররা এবং সেন্ট কিল্ডা দ্বীপপুঞ্জের নিকটে এর বসবাস।

বিরল প্রজাতির এই হাঙ্গরের থলথলে বৈশিষ্ট্যর কারণে একে বিভিন্ন ধরণের নাম দেয়া হয়। সম্প্রতি এই হাঙ্গরকে বিশ্বের সবচেয়ে কুৎসিত প্রাণী হিসেবে বিবেচনা করা হয়।
গত এক দশকে এই ধরণের হাঙ্গর এই নিয়ে দ্বিতীয়বার আবিষ্কৃত করা হয়েছে।

সামুদ্রিক জীববিজ্ঞানী ফ্রান্সিস নীট বলেন, ‘ এটা যখন আমাদের নৌকায় অবতরণ করে তখন আমি বেশ অবাক হয়েছি। আমরা দ্রুত এর ওজন ও দৈর্ঘ্য পরিমাপ করে পানিতে ছেড়ে দিয়েছি। আমরা গত দশ বছরে এই রকম হাঙ্গর দেখিনি। এটা স্কটল্যান্ডে অনন্য নয় কিন্তু এটি দেখা অবশ্যই আকর্ষণীয়। এটা দেখতে অনেকটা প্রত্যাখ্যাত সোফার ন্যায়।

এই হাঙ্গর একটি মহিলা হাঙ্গর ছিল এবং এর ওজন প্রায় ৬০ কেজি। কখনও কখনও এরা তিন মিটার দীর্ঘ পর্যন্ত বড় হতে পারে এবং ১২৫ কেজি এর কাছাকাছি ওজন সম্পন্ন হতে পারে।–সূত্র: মেট্রো।






মন্তব্য চালু নেই