মেইন ম্যেনু

মানুষের সততা যাচাইয়ের জন্য অদ্ভুত পরীক্ষা (ভিডিও)

কোরিয়ার মানুষের সততা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে অ্যামাজিংথিংস ডটকম। প্রতিবেদনটিতে কোরিয়ার মানুষের সততার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে এক ব্যক্তির অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরা হয়েছে।

th1

সেই ব্যক্তি জানান, যখন তিনি কোরিয়ার সিউলে ছিলেন তখন একবার সিভিরেন্স হাসপাতালে ডিনারের জন্য যান এবং ভুলে ওয়ালেট ফেলে আসেন। ‘আমার ওয়ালেটে ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ড সহ নগদ পাঁচ লাখ ওন ছিল। যা আমার ছয় মাসের চলার খরচ।

যখন আমি বুঝতে পারি যে আমি আমার ওয়ালেট হারিয়েছি তখন সেটা খোঁজার জন্য আবার সেখানে যাই এবং আমি তখন খুঁজে পাইনি। সে সময় সেখানকার এক গ্রাহক আমাকে সাহায্য করেন, তখনো আমি ওয়ালেটটি খুঁজে পাইনি। আমি ইনফরমেশন কাউন্টারে যাই এবং সেটা ফেরত পাই।’ জানান তিনি।

তিনি ভেবেছিলেন, হয়তো ওয়ালেটটি আর খুঁজে পাবেন না। ‘আমি ৫০ বার তাদের ধন্যবাদ জানাই। ধন্যবাদ জানাই কোরিয়া দেশটিকেও।’ অভিভূত হয়ে মন্তব্য করেন ওই ব্যক্তি।

আরেকদিন বিকাল ২ টার সময় নোরায়েব্যাংয়ে আমার ডেবিট কার্ড ফেলে আসেন তিনি। পরের দিন সকাল ১০ টা পর্যন্ত কেউই সে মানিব্যাগ ব্যবহার করেননি। কোরিয়াতে ক্রেডটকার্ড দিয়ে কেনাকাটা করলে স্বাক্ষরের দিকে লোকজন তেমন একটা লক্ষ্য করেন না।

th

‘অনেক সময় হয়তো একটি ডট চিহ্নই আমার স্বাক্ষর। এত সুযোগ থাকা সত্বেও কেউই সেটি ব্যবহার করেন নি।’ জানান তিনি।

সেখানকার মানুষের সততার প্রমাণ করতে গিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে অ্যামাজিংথিংস। ভিডিওতে দেখা গেছে মেট্রো রেলে মধ্যে জিনিসে পূর্ণ্য ১০০ ব্যাগ রাখা হয় লোকজনের মানসিকতা যাচাইয়ের জন্য। তারপর কী ঘটলো তা দেখুন ভিডিওতে …






মন্তব্য চালু নেই