মেইন ম্যেনু

দেশের সবচেয়ে গরিব মানুষটিকে খুঁজে না পেয়ে দানের টাকা ফিরে গেলো প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর!

‘রাজার অসুখ’ সারাতে ‘ভাবনাচিন্তাহীন, সদা হাস্যময়, হাসিখুশি মনে’র একজন মানুষ খুঁজতে মন্ত্রী-কোটাল-সেনাপতির কী দুর্দশা হয়েছিল, তা আশাকরি মনে আছে। দেশের দরিদ্রতম মানুষটিকে খুঁজতে গিয়ে, সরকারি লোকজনদের নিশ্চিত ভাবে সেরকমই নাস্তানাবুদ হতে হত।

শুধু সরকারি লোকজন কেন, কেউ দায়িত্ব দিলে আমরা নিজেরাও কি পারতাম দেশের দরিদ্রতম মানুষটিকে খুঁজে বের করতে? এ নিয়ে সরকারের কোনও ধারণাই নেই। আর তাই ভারতের দরিদ্রতম মানুষটিকে চিহ্নিত করতে না-পারায়, এক অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষকের দানের টাকা শেষমেশ ফিরিয়েই দিল প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর।

রাজস্থানের অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক দীপচাঁদ শর্মা গত বছর এক লক্ষ টাকা দান করেছিলেন দেশের সবচেয়ে গরিবমানুষটির জন্য। এ বছর ফেব্রুয়ারিতেই প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর সেই দানের টাকা সবিনয়ে ফিরিয়ে দেয়। সরকারের তরফে জানানো হয়, কাজটি কঠিন। তাই দানের টাকা ফিরিয়ে দেওয়া হল।

সম্পত্তির নিক্তিতে বিশ্বের ধনপতি মানুষদের মাপার ব্যবস্থা রয়েছে। ফোর্বস ম্যাগাজিন ৮৪জন ভারতীয় ধনকুবেরের তালিকাও প্রকাশ করেছে। কিন্তু, গরিবদের এমন সারণি কোথাওই নেই।

২০১২-র সরকারি পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, ভারতে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা ৩৬ কোটি ৩০ লক্ষ। দেশের মোট জনসংখ্যার ২৯% দরিদ্র শ্রেণির।-এই সময়






মন্তব্য চালু নেই