মেইন ম্যেনু

দেশে তৈরি জামা ভারতীয় বলে বিক্রি!

সামনে ঈদ। আর ঈদ উপলক্ষে কেনাকাটায় ব্যস্ত রাজধানীবাসী। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিপনী বিতানগুলোতে ভিড় জমাচ্ছেন তারা। ঈদ বাজারে দেশী পোশাকের চেয়ে ভারতীয় পোশাকের চাহিদা অনেক বেশী। আর এ চাহিদার সুযোগ নিচ্ছে এক ধরণের প্রতারক ব্যবসায়ীরা।

জানা যায়, ভারতীয় পোশাকের চাহিদা বেশী থাকায় দেশে তৈরি অনেক পোশাক বিক্রি হচ্ছে ভারতীয় বলে। এই পোশাকগুলো অনেক নিম্ন মানেরও। তবে ব্যবসায়ীরা হাকাচ্ছেন অনেক দাম।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্চুক নিউ মার্কেটের এক ব্যবসায়ী বলেন, ভারতীয় বলে যে পোশাকগুলো বিক্রি করা হচ্ছে এর মধ্যে অনেকগুলোই দেশে তৈরি। বিক্রি করার সার্থেই ভারতীয় বলে নাম দেয়া হয়।

তিনি জানান, ভারতীয় পোশাক বললে ক্রেতারাও বেশী আকৃষ্ট হয় আর দামও ভাল পাওয়া যায়। এজন্য ব্যবসায়ীরা এ কৌশল অবলম্বন করছেন।

ভারতীয় জামার মধ্যে বাজারে বিনয়, জয়, বানি, বিজয়, গঙ্গা, তেজু, এলটি, পাচীর, গিরগিট, বাজিরাও মাস্তানি, বজরঙ্গি ভাইজান, কিরণমালা, পাখি জামা বিক্রি হচ্ছে। এ জামাগুলোর মধ্যে অনেকগুলোই দেশে তৈরি বলে জানিয়েছেন কয়েকজন ব্যবসায়ী।

অন্যদিকে দেশের বাজারে নামে-বেনামে ভারতীয় পোশাকের আধিপত্যের কারণে দেশী পোশাকের কদর কমছে বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। তারা বলছেন, ভারতীয় পোশাকের প্রতি ক্রেতাদের আলাদা নজর থাকে। সে কারণে দেশী পোশাকের গুরুত্ব কমছে ক্রেতাদের কাছে।

তারা বলছেন, যেহেতু ক্রেতাদের কাছে ভারতীয় পোশাকের চাহিদা বেশী তাই চাহিদা অনুযায়ী ভারতীয় পোশাক সরবরাহ করে আসছেন তারা। এতে করে দেশের বাজার হারাচ্ছে বাংলাদেশী পন্য।






মন্তব্য চালু নেই