মেইন ম্যেনু

দেশে ভয়ঙ্কর নৈরাজ্য চলছে : খালেদা

দেশের বর্তমান অবস্থায় সবার পক্ষে ঈদের আনন্দ যথাযথভারে উপভোগ করা সম্ভব হবে না এমন দাবি করে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, “দেশে এক ভয়ঙ্কর নৈরাজ্য চলছে। মানুষের জান ও সহায় সম্পদের কোনো নিরাপত্তা নেই।”

আজ বুধবার পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে বিশ্বের মুসলমানদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়ে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে খালেদা জিয়া এ দাবি করেন।

বিবৃতিতে খালেদা জিয়া বলেন, “প্রতিবছর ত্যাগের মহিমায় মহিমান্বিত ঈদুল আজহা আমাদের মাঝে ফিরে আসে। স্বার্থপরতা পরিহার করে মানবতার কল্যাণে নিজেকে উৎসর্গ করা কোরবানির প্রধান শিক্ষা। হিংসা-বিদ্বেষ, লোভ-ক্রোধকে পরিহার করে সমাজে শান্তি ও সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় আত্মনিবেদিত হওয়া আমাদের কর্তব্য। কোরবানির যে মূল শিক্ষা তা ব্যক্তিজীবনে প্রতিফলিত করে মানব কল্যাণে ব্রতী হওয়ার মাধ্যমে মহান আল্লাহ রাব্বুল আল আমিনের সন্তুষ্টি ও নৈকট্য লাভ সম্ভব। বিশ্বাসী হিসেবে সে চেষ্টায় নিমগ্ন থাকা প্রতিটি মুসলমানের কর্তব্য।”

তিনি দাবি করেন, “দেশে এক ভয়ঙ্কর নৈরাজ্য চলছে। মানুষের জান, সহায়-সম্পদের কোনো নিরাপত্তা নেই। দেশের বর্তমান অবস্থায় সবার পক্ষে ঈদের আনন্দ যথাযথভারে উপভোগ করা সম্ভব হবে না। দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি দরিদ্র ও কম আয়ের মানুষকে চরম দুর্ভোগের মুখে ঠেলে দিয়েছে। পানি, জ্বালানি তেল, গ্যাস, বিদ্যুতের তীব্র সংকট জনজীবনে দুর্বিসহ অবস্থার সৃষ্টি করেছে।”

তিনি দেশের সব বিত্তবান ও সামর্থ্যবান ব্যক্তিকে দরিদ্র ও অসহায় মানুষের দিকে সাহায্য ও সহমর্মিতার হাত প্রসারিত করার আহ্বান জানান। ঈদের আনন্দের দিনে কেউ যাতে অভুক্ত না থাকে সেদিকে আমাদের সবাইকে খেয়াল রাখার আহ্বান জানান লন্ডন সফরে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন।






মন্তব্য চালু নেই