মেইন ম্যেনু

‘ধনীদের বাজেট’

২০১৫-২০১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে সাধারণ মানুষের জন্য কিছু নেই, এ দাবি করে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ‘এই বাজেট ধনীদের।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে জিডিপি প্রবৃদ্ধি প্রায় ৭ শতাংশ ছিল। গত ৭ বছরে তা তো বাড়েনি, বরং কমেছে। এই বাজেটেও প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ৭ শতাংশ। এতে প্রমাণ হয়, সরকার দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ঘটাতে পারেনি।’

সরকারের দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার কারণে প্রবৃদ্ধি বাড়েনি বলেও মনে করেন বিএনপির এই নেতা।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর বনানীতে হোটেল সারিনায় তার বাণিজ্যিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে বাজেট নিয়ে কথা বলেন তিনি।

জাতীয় সংসদে ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বেলা তিনটা ৩৫ মিনিট থেকে তিনি বাজেট বক্তৃতা শুরু করেন। নবম বারের মতো জাতীয় সংসদে বাজেট উত্থাপন করেন তিনি।

২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে বাজেটের আকার দুই লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকা। গত অর্থবছরে (২০১৪-১৫) বাজেটের আকার ছিল দুই লাখ ৫০ হাজার ৫০৬ কোটি টাকা। এবারের বাজেটে ঘাটতি ধরা হয়েছে ৮৬ হাজার ৬৫৭ কোটি টাকা।

আমীর খসরু বলেন, ‘বাজেটে যে লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হচ্ছে, সরকার সে লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছাতে পারবে না। সরকারের দুর্নীতির বোঝা জনগণের ঘাড়ে চাপাতে বিশাল এ বাজেটের প্রস্তাব করা হয়েছে।’

প্রস্তাবিত বাজেটে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বেড়ে যাবে, দাবি করে বিএনপি চেয়ারপারসনের এই উপদেষ্টা বলেন, বাজেটে সাধারণ মানুষের কোনো সুখবর নেই। বরং সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এই বাজেটের কারণে জনসাধারণ উপকৃত হবে না।’






মন্তব্য চালু নেই