মেইন ম্যেনু

ধর্ম পরিবর্তন করেছেন বলিউডের যে ৫ অভিনেত্রী

মাঝে মাঝে ভালবাসা জীবনের সবচেয়ে বড় চাহিদা হিসেবে পরিগণিত হয়। যেখানে ধর্ম-বর্ণ কোন প্রভাব ফেলতে পারে না। ভালবাসা এমন একটি বিষয় যা পৃথিবীর কোন আইনকে তোয়াক্কা করে না। সত্যিকারের ভালবাসায় কখনও কোন তৃতীয় পক্ষ আসতে পারে না। ভালবাসার জন্য নিজেদের ধর্ম ত্যাগ করেছেন এমন বলিউডের কয়েকজন অভিনেত্রী নিয়ে আজ আমাদের বিশেষ আয়োজন।

১.আয়েশা টাকিয়া : আয়েশা টাকিয়া বলিউডের অন্যতম আবেদনময়ী একজন অভিনেত্রী। “টারজান” ও “ওয়ান্টেড” এর মত জনপ্রিয় ও ব্যবসা সফল ছবি দিয়ে জনগণের ও সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছেন। সে একজন রাজনৈতিক পরিবারের ছেলে ও রেস্টুরেন্টের মালিক ফারহান আজমিকে ভালবেসে বিয়ে করেছেন। তারা ২০০৯ সালের ১ই মার্চ বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের মুসলিম রীতিতেই বিয়ে হয়েছিল। তবে তিনি যে মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করেছেন তা প্রকাশ করেননি।

২. শর্মিলা ঠাকু : শর্মিলা ঠাকুর তার ক্যারিয়ার বাংলা চলচ্চিত্রের মাধ্যমে শুরু করেন। তিনি নবাবের বংশধর এবং ভারতের ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মনসুর আলী খান পাতৌদিকে বিয়ে করেন। তাদের ১৯৬৯ সালের ২৭ ডিসেম্বর বিয়ে হয়। শর্মিলা মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করেন এবং সে বেগম আয়েশা সুলতানা নামেও পরিচিত। মনসুর আলী খান ২০১১ সালের ২২ সেপ্টেম্বর ৭০ বয়স বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।

৩. অমৃতা সি : তিনি শিখ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন এবং সেখানেই বেড়ে উঠেন। তিনি ১৯৯১ সালে সাইফ আলী খানের সাথে বিবাহ করার পূর্বে মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করেন। তাদের ঘরে দুইজন সন্তান রয়েছেন। কিন্তু বিয়ের ১৩ বছর পর ২০০৪ সালে তারা বিবাহ বিচ্ছেদ করেন।

৪. নার্গিস দত্ত : নার্গিস দত্ত তার ভালবাসার জন্য মুসলিম ধর্ম ত্যাগ করে হিন্দু ধর্মে রুপান্তরিত হয়। তিনি তার নাম নির্মলা দত্তে রুপান্তরিত করেন। এই দম্পতি ১৯৫৮ সালের ১১ মার্চ বিবাহ-বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের ঘরে তিনজন সন্তান রয়েছেন- সঞ্জয় দত্ত, নাম্রাতা ও প্রিয়া।

৫. নাগম দক্ষিণ ভারতীয় অভিনেত্রী ১৯৬৯ সালে মুম্বাইতে বসবাসরত মরারজিকে বিয়ে করেন। তিনি তার ভালবাসার জন্য হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে খ্রিস্টান ধর্ম গ্রহণ করে। কিন্তু, ১৯৭৩ সালে তার বিবাহ-বিচ্ছেদ হয়ে যায়।






মন্তব্য চালু নেই