মেইন ম্যেনু

ধামরাই শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহণ চলছে

টিপু সুলতান (রবিন) সাভার প্রতিনিধি: ঢাকার ধামরাইয়ে কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই শান্তিপূর্ন ও সুষ্ঠ ভোটগ্রহন চলছে। সকাল থেকেই উপজেলার ১৫ টি ইউনিয়নে বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে ভোট দিচ্ছেন সাধারন ভোটাররা। সরেজমিনে সোমভাগ ইউনিয়নের চাপিল, নওগাঁও, শৈলান ও দেপাশাই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ঘুড়ে দেখা যায়, শান্তিপূর্ন পরিবেশে লাইনে দাড়িয়ে ভোট দিচ্ছেন পুরুষ ও মলিহা ভোটাররা। কেন্দ্রের ভিতরে ও বাইরে প্রস্তুত রয়েছে আইন-শৃক্সখলা বাহিনীর সদ্যরা।

সোমভাগ ইউনিয়ন ৫ নং সাধারন ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী (ফুটবল) মোঃ আব্দুল হান্নান জানান, সকাল থেকে ভোটারদের উপস্থিতি ভালো। সকাল থেকে সুষ্ঠ ভাবেই ভোট গ্রহণ চলছে কোন প্রকার বিশৃক্সখলার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছেনা। এভাবে শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলতে থাকলে যোগ্য প্রার্থীরাই নির্বাচিত হবে বলে মনে করেন তিনি।

ভোট কেন্দ্রের সকালের পরিবেশ সম্পর্কে কেন্দ্রের সামনে ভোট দেয়ার অপেক্ষায় দাড়িয়ে থাকা ভোটার ময়নাল হোসেন জানান,কেন্দ্রে আইনসৃংখলা বাহিনীর উপস্থিতি বেশ লক্ষণীয়। আইনসৃংখলা বাহিনী তৎপর থাকলে আমরা যোগ্য প্রার্থীদের বাছাই করতে পারবো। তবে ভোট কেন্দ্রের সকালের পরিবেশ নিয়ে এই প্রতিবেদকের কাছে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

দেপাশাই গ্রামের হাজেরা বেগম নামে এক ভোটার বলেন, পছন্দের ও যোগ্য প্রার্থীদের ভোট দিতে পেরে আমি আনন্দিত। শান্তি পূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহণ চলছে কোন প্রকার হয়রনী নেই। এভাবেই যেন দিনব্যাপী শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোট গ্রহন চলে সেই বিষয়ে লক্ষ্য রাখার জন্য প্রশাসনের প্রাতি আহব্বান জানান তিনি।

দক্ষিন দেপাশাই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রিজাইডিং অফিসার মোস্তফা মিয়া বলেন, সকাল থেকেই সুষ্ঠ পরিবেশে ভোট গ্রহন চলছে। তবে বৃষ্টির কারনে ভোটারদের উপস্থিত তুলনামূলক কম। এছাড়া ভোট কেন্দ্রে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত না হওয়ায় অন্ধকারে বৃদ্ধ ভোটারদের ভোট দিতে কিছুট সম্যার সম্মূখীন হতে হচ্ছে। দুপুর ১২ টা পর্যন্ত কেন্দ্রটিতে ২০% ভোট কাষ্ট হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আইন-শৃক্সখলার দায়িত্বে থাকা ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুল আজীম বলেন, নির্বিঘ্ন ভাবে ভোটগ্রহন নিশ্চিত করতে প্রতিটি কেন্দ্রে পর্যপ্ত সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। কোথাও কোন সংঘাত হওয়ার সম্ভাবনা নাই। এছাড়া আনসার, বিজিবি ও র‌্যাবসহ স্ট্রাইকিং ফোর্স মোতায়েন রয়েছে। ধামরাই উপজেলার ১৫ টি ইউনিয়নে ৪৪ টি মোবাইল টিম ও প্রতিটি কেন্দ্রে ১ জন করে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট, ১৫ টি স্ট্রাইকিং টিম ও ৫ টি স্ট্রাইকিং রিজার্ভ টিম দায়িত্ব পালন করছেন। ভৌগলিক অবস্থান বিবেচনা করে এসব টিমগুলোকে প্রতিটি কেন্দ্রে ভাগ করে দেয়া হয়েছে। যদি কোন কেন্দ্রে ভোট কারচুপি কিংবা বিশৃক্সখলার চেষ্টা হয় তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উল্লেখ্য শনিবার ধামরাই উপজেলার ১৬ টি ইউনিয়নের মধ্যে সুতিপড়া ছাড়া বাকী ১৫ ইউনিয়নে ১৫৫ টি ভোটকেন্দ্রের ৬৭০ টি ভোটকক্ষে শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোটগ্রহন চলছে। এসব ভোটকেন্দ্রে দুই লক্ষ্য ৬০ হাজার ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। অন্যদিকে সীমান সংক্রান্ত জটিলতা থাকায় হাইকোর্টোর নির্দেশে সুতিপাড়া ইউনিয়নে ভোটগ্রহন স্থগিত রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই