মেইন ম্যেনু

ধূমপানের আসক্তি দূর করবে ই-সিগারেট

পৃথিবীতে ধূমপায়ীদের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ধূমপান জনিত কারণে অসুস্থ্যতায় প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ মারা যায়। ধূমপানের আসক্তি দূর করতে বাজারে আসছে ই-সিগারেট। যদিও এটাতে স্বল্প পরিমান নিকোটিন থাকছে। এই ডিভাইস মূলত ধূমপায়ীদের আসক্তি তাড়াতে থেরাপি হিসেবে কাজ করবে।

প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জ জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের একদল গবেষক ই-সিগারেট ডিভাইসটি তৈরি করেছে। কিন্তু সহসাই এটি বাজারে আসছে না। এজন্য চাই নীতিমালা। আর তাইতো ই-সিগারেটের নীতিমালা অনুমোদন করানোর জন্য প্রকল্পটির নথি হোয়াইট হাউজে পাঠানো হয়েছে। নথিটি যাচাই বাছাই করে তবেই অনুমোদন মিলবে। সোমবার এ বিষয়টি হোয়াইট হাউজে নিস্পত্তি হওয়ার কথা রয়েছে।

এই ই-সিগারেটটিতে নিকোটিন রয়েছে। যন্ত্রটির মাধ্যমে এই নিকোটিন বাস্পীয় আকারের মাধ্যমে ধূমপানের মত ধোঁয়া নেয়া যায়। ডিজাইসটি ব্যাটারি দ্বারা চালিত।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদপত্র দ্য হিল জানিয়েছে, এই ডিভাইসটিতে যেহেতু নিকোটিন রয়েছে তাই সেদেশের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনেস্ট্রেশনের কাছ থেকে ছাড়পত্র লাগবে। ছাড়পত্র মিললে তবেই এটি বাজারে আসবে।

তবে এটি বাজারে আসলে ধূমপায়ীর সংখ্যা কমবে সেটা বলা যায় না। কারণ, এই সিগারেটের মত ই-সিগারেটেও নিকোটন রয়েছে। আর সেটা ধোঁয়ার মাধ্যমে ঠিকই ফুসফুসে প্রবেশ করছে। তবে আশার কথা হলো, এই ডিভাইসটি কেবল সনদপ্রাপ্ত চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র সহ কেনা যাবে। ফলে মন চাইলেই কেউ এটি কিনতে পারছে না। অন্যদিকে এটি শুধুমাত্র ধূমপায়ীদের আসক্তি দূর করতে থেরাপি হিসেবে ব্যবহার করা হবে। কারো নেশার ক্ষুধা মেটানোর জন্য নয়।






মন্তব্য চালু নেই