মেইন ম্যেনু

কালকিনিতে যৌতুকের দাবিতে স্বামীর নির্যাতনে অন্তঃস্বত্তা গৃহবধুর মর্মান্তিক মৃত্যু

যৌতুকের দাবিতে স্বামী ও শশুরবাড়ীর লোকজনের অমানবিক নির্যাতনে গত রোববার সন্ধায় মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ডাসার থানার বালীগ্রাম এলাকার পশ্চিম বালীগ্রামে খাদিজা বেগম-(২৪) নামের এক অন্তঃস্বত্তা গৃহবধুর মর্মান্তিক মুত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সুত্রে যানা গেছে, গত ২০০৯ সালে মাদারীপুর সদর উপজেলার ঝাউদী গ্রামের ইউসুফ ফকিরের ছেলে এনায়েত ফকিরের সাথে উপজেলার বালীগ্রাম এলাকার পশ্চিমবালীগ্রামের সিরাজ সরদারের মেয়ে খাদিজা বেগমের সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় ২০ হাজার টাকা যৌতুকের দাবিতে স্বামী ও শশুর –শাশুরী মিলে শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে। এ যৌতুকের টাকা দিতে অস্বীকার করলে খাদিজার স্বামী তাকে হাতুরী দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে আহত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে নিতের মা সুরাতন বেগম অভিযোগ করে ভিসন আক্ষেপের সঙ্গে বলেন, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য স্বামী ও শশুর শাশুরী মিলে মাড়ধোর করে আসছে। আমি ভিক্ষা করে সংসার চালাই তাই আমি যৌতুকের টাকা পাবো কোথায়। এ টাকা দিতে না পারায় আমার মেয়েকে শেষ করে দেয়া হয়েছে। আমি এ হত্যার বিচার চাই।

এ ব্যাপারে ডাসার থানার এস আই এমদাত হোসেন বলেন, আমরা খবর পেয়ে গহৃবধু খাদিজার লাশ উদ্ধার করেছি। তবে ময়না তদন্তে জন্য লাশ মাদারীপুর মর্গে প্রেরন করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই