মেইন ম্যেনু

নওগাঁ আইন কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা

নওগাঁয় আইন কলেজ (নৈশ) বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ এনে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে শিক্ষার্থীরা। রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘোষণা দেয়া হয়।

জানা যায়, নৈশ্য বিদ্যালয় আইন কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের আগামী শুক্রবার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সে কারণে শিক্ষার্থীরা কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে প্রবেশ পত্র (অ্যাডমিট কার্ড) নিতে আসে। কিন্তু শিক্ষার্থীদের প্রবেশ পত্র না দিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ পিকনিকের জন্য আলোচনায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন। বিষয়টি বার বার জানানো হলেও কর্তৃপক্ষ কোনো কর্ণপাত না করে আলোচনায় ব্যস্ত থাকেন। এক পর্যায়ে অধ্যক্ষ শিক্ষার্থাদের উপর চড়াও হয়। শিক্ষার্থীরা এর প্রতিবাদ করলে তাদের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়। এসব অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোন এনে শিক্ষার্থীরা অনির্দিষ্টকালের জন্য কলেজ বন্ধ ঘোষণা করেছে।

প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী তন্ময় জানান, প্রবেশ পত্র নিতে গেলে তাকে প্রবেশ পত্রের বিভিন্ন ভুল আছে বলে অতিরিক্ত টাকা দাবি করা হয়। টাকা নিলেও কোনো প্রকার রশিদ দেওয়া হয় না। এছাড়া রশিদ দেওয়া হলে ২শ টাকার পরিবর্তে ৫ হাজার টাকা লেখা থাকে।

এছাড়া শিক্ষার্থী রাহমানিয়া আলম রিজভি জানান, প্রতিবাদ করলে আমাদের প্রবেশ পত্র দেওয়া হবে না বলে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখানো হয়। কোনো নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে কলেজ কর্তৃপক্ষ নিজেদের ইচ্ছেমতো টাকা দাবি করে থাকেন। টাকা না দিলেও বিভিন্ন অজুহাতে শিক্ষার্থীদের হয়রানি করা হয়। এজন্য আমরা সকল শিক্ষার্থী একত্রিত হয়ে এসব অনিয়মের প্রতিবাদ জানাচ্ছি। উপযুক্ত ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত কলেজ বন্ধ থাকবে।

নওগাঁ আইন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ জয়নূল হোসেন জানান, শিক্ষার্থীদের আনিত অভিযোগ মোটেও সত্য নয়। এছাড়া কলেজ থেকে রশিদ ছাড়া কোনো টাকা নেওয়া হয়।






মন্তব্য চালু নেই