মেইন ম্যেনু

নতুন তামিম-সাকিবের খোঁজে বিসিবির নয়া উদ্যোগ

নতুন তামিম-সাকিবদের খোঁজে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) নতুন উদ্যোগ হাতে নিয়েছে।

এ ব্যাপারে সংবাদ সম্মেলনে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘শিগগিরই দেশের ৫৪০টি স্কুলকে নিয়ে আগামীকাল থেকে স্কুল ক্রিকেট টুর্নামেন্ট চালু হচ্ছে।

৫ জানুয়ারি খেলা মাঠে গড়াবে। জেলা পর্যায় থেকে জাতীয় পর্যায় পর্যন্ত মোট ৯৬৫ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। মার্চের মাঝামাঝি সময়ে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে ফাইনাল হবে।

বুধবার দুপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বৃহৎ এ আয়োজনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সুজনসহ পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান প্রাইম ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ কামাল খান চৌধুরী ও ব্যাংকটির জনসংযোগ শাখার প্রধান মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন

জেলা পর্যায়ে মোট ম্যাচের সংখ্যা ৯০১। জেলা চ্যাম্পিয়নরা অংশ নেবে বিভাগীয় পর্যায়ে। এ পর্যায়ে হবে ৫৭ ম্যাচ। জাতীয় পর্যায়ে ৭ ম্যাচ শেষে নির্ধারিত হবে স্কুল ক্রিকেটের নতুন চ্যাম্পিয়ন।

স্কুল ক্রিকেট নিয়ে খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘দেশের ক্রিকেটের পাইপলাইন তৈরিতে দারুণ ভূমিকা রাখছে স্কুল ক্রিকেট। আমিও স্কুল ক্রিকেট খেলেই জাতীয় পর্যায়ে এসেছি। বহু ক্রিকেটারের হাতেখড়ি এখান থেকে। আশা করি স্কুল ক্রিকেট থেকে আগামীর সাকিব-তামিমরা বেরিয়ে আসবে। ’

বর্তমানে স্কুল ক্রিকেট খেলা ১৭জন ক্রিকেটার খেলছে অনূর্ধ্ব-১৫ জাতীয় দলের হয়ে। এছাড়া অনূর্ধ্ব- ১৭ জাতীয় দলের হয়ে খেলছেন স্কুল ক্রিকেট থেকে বাছাইকৃত ১৬ ক্রিকেটার।

স্কুল ক্রিকেটের এবারের আসরে ঢাকা বিভাগ থেকে অংশ নিচ্ছে সর্বোচ্চ সংখ্যক ১২৪টি স্কুল। এছাড়া চট্টগ্রামের ৮৮, খুলনার ৮০, রাজশাহীর ৬৮, রংপুরের ৬৮, বরিশালের ৪০, সিলেটের ৩৬ ও ঢাকা মেট্রোর ৩২টি স্কুল অংশ নেবে।






মন্তব্য চালু নেই