মেইন ম্যেনু

নতুন বেতনস্কেলের বকেয়া দুই কিস্তিতে দেওয়া হবে

সরকারি চাকুরিজীবীরা জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫-এর আওতায় ২০১৫ সালের নভেম্বর পর্যন্ত ৫ মাসের বর্ধিত বেতন বকেয়া হিসেবে পাবেন।

জুলাই এবং আগস্ট এই দুই মাসের পাওনা বকেয়া (মহার্ঘভাতা সমন্বয়সহ) ডিসেম্বরের বেতনের সঙ্গে পাবে এবং সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর পর্যন্ত তিন মাসের পাওনা বকেয়া (মহার্ঘভাতা সমন্বয়সহ) ২০১৬ সালের জানুয়ারির বেতনের সঙ্গে দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে সম্প্রতি অর্থ বিভাগের বাস্তবায়ন-১ অধিশাখা থেকে প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ২০১৫ সালের ১ জুলাই থেকে নতুন জাতীয় বেতনস্কেল কার্যকর হয়েছে। ১৫ ডিসেম্বর এক এসআরওর মাধ্যমে বেতনস্কেলের গেজেট প্রকাশ হয়েছে। চাকরি (বেতন ও ভাতাদি) আদেশ ২০১৫-এর ১(৩)(খ) অনুচ্ছেদে প্রজাতন্ত্রের সব চাকুরিজীবীর জন্য ২০১৫ সালের ১ জুলাই থেকে এ আদেশ জারির তারিখ পর্যন্ত বকেয়া বেতনের প্রাপ্যতা এবং ১(৩)(ঘ) অনুচ্ছেদ ১ জুলাই থেকে ইতিমধ্যে আহরিত মহার্ঘভাতা প্রাপ্য বকেয়ার সঙ্গে সমন্বয় করা হবে।

এ ছাড়া অপর এক প্রজ্ঞাপনে সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য ‘শিক্ষাসহায়ক ভাতা’ নির্ধারণ করা হয়েছে, যা ২০১৬ সালের ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে। এতে সব কর্মচারীর জন্য সন্তান প্রতি মাসিক ৫০০ (পাঁচ শত) টাকা হারে এবং অনধিক ২ সন্তানের জন্য সর্বোচ্চ ১ হাজার (এক হাজার) টাকা ‘শিক্ষাসহায়ক ভাতা’ দেওয়া হবে। স্বামী ও স্ত্রী উভয়ই চাকরিজীবী হলে সন্তান সংখ্যা যেকোনো একজনের ক্ষেত্রে গণনা করে ভাতার পরিমাণ নির্ধারণ করা হবে।

এ ভাতা পেতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানের প্রত্যয়নপত্র এবং জন্মনিবন্ধন সনদের কপি দাখিল করতে হবে। জন্মনিবন্ধন সনদ অনুযায়ী ২১ বছর পর্যন্ত বয়সি সন্তান এ ভাতা পাবেন।






মন্তব্য চালু নেই