মেইন ম্যেনু

নতুন মায়েদের খাদ্য তালিকায় রাখুন এই ৭টি খাবার

গর্ভকালীন সময় মায়েদের খাবারে অনেক বেশি সচেতন থাকেন কিন্তু শিশু জন্ম গ্রহণ করার পর সবার মনোযোগ শিশুটির দিকে বেশি থাকে। নতুন মায়ের স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিতে ভুলে যায় সবাই। অথচ এই সময় মায়েদের প্রয়োজন হয় বাড়তি যত্নের। নতুন মাকে শারীরিক দূর্বলতা কাটিয়ে সুস্থ হয়ে উঠতে প্রয়োজন পড়ে পুষ্টিকর খাবারের। এছাড়া মায়ের বুকের দুধের উৎপাদন নির্ভর করে পুষ্টিকর খাবারের উপর। এই সময় এমন কিছু খাবার আছে যা খাওয়া একদম উচিত নয়। ঠিক তেমনি এমন কিছু খাবার আছে যা প্রতিটি নতুন মায়ের খাদ্য তালিকায় রাখা উচিত।

১। ওটমিল

স্বাস্থ্য সচেতনতার কাছে ওটমিল বেশ পরিচিত একটি খাবার। উচ্চ আঁশযুক্ত এই খাবারটি খুব সহজে হজমযোগ্য। যা মায়েদের কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা দূর করে। প্রচুর আয়রন থাকায় এটি রক্ত স্বল্পতা দূর করে। এমনকি এটি বুকের দুধ বৃদ্ধি করে থাকে।

২। ডিম

প্রোটিন এবং অ্যামিনো অ্যাসিড সমৃদ্ধ ডিম প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় রাখুন। এটি কাজের শক্তি প্রদান করে দেহের স্ট্যামিনা বৃদ্ধি করে থাকে। এছাড়া ডিমের কুসুমে ভিটামিন ডি, মিনারেল এবং অন্যান্য পুষ্টি উপাদান রয়েছে যা বাচ্চার হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে। দিনে এক থেকে দুটি ডিম খাওয়ার চেষ্টা করুন।

৩। রসুন

রসুনের অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিফাঙ্গাল উপাদান ইনফেকশন দূর করতে সাহায্য করে। রসুন শুধু অভ্যন্তরীণ ইনফেকশন দূর করে না এটি বুকের দুধ বৃদ্ধি করে থাকে।

৪। পালং শাক

যেকোন সবুজ শাক-সবজি নতুন মায়েদের জন্য উপকারী। এর মধ্যে পালং শাক অন্যতম। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, ফলিক অ্যাসিড থাকে, যা নতুন রক্ত কোষ তৈরি করে। যে সকল মায়েদের শিশু জন্মদানের সময় রক্তপাত হয়ে থাকে তাদের জন্য পালং শাক খাওয়া অনেক প্রয়োজন।

৫। দুধ

প্রতিদিন দুই গ্লাস করে দুধ পান করুন। ক্যালসিয়াম, ভিটামিনসহ অনেকগুলো পুষ্টির চাহিদা পূরণ করবে এক গ্লাস দুধ। এছাড়া দুধ শরীরকে হাইড্রেটেড রাখতে সাহায্য করে।

৬। কাঠবাদাম

ভিটামিন ই এবং আরও কিছু প্রয়োজনীয় এসেন্সিয়াল অয়েল সমৃদ্ধ কাঠবাদাম নিয়মিত খাওয়া উচিত নতুন মায়েদের। এর পুষ্টি উপাদান মা এবং শিশু উভয়ের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কাঠবাদামে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে যা বুকের দুধ বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। শিশুর দাঁত এবং হাড় গঠনে ভূমিকা রাখে এই ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড।

৭। মেথি

আয়রন, ফাইবার, ক্যালসিয়াম এবং নানা ভিটামিন, মিনারেলের মিশ্রণ মেথিতে পাওয়া যায়। যা নতুন মায়ের হজমশক্তি বৃদ্ধি করে। এটি বুকের দুধ বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে। এক টেবিল চামচ মেথি এক কাপ পানিতে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন এই মিশ্রণ চুলায় কয়েক মিনিট জ্বাল দিন। পরের দিন সকালে এটি পান করুন।






মন্তব্য চালু নেই