মেইন ম্যেনু

নতুন স্কেলে বোনাস পাচ্ছেন পেনশনভোগীরাও

নতুন বেতন স্কেলে সাড়ে চার লাখ পেনশনভোগীকে ঈদ বোনাস দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কার্যালয় (সিজিএ) থেকে অধীনস্থ সব অফিসকে এ নির্দেশ দেয়া হয়।

এতে অবসরে যাওয়া সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নতুন বেতন কাঠামোতে ঈদ বোনাস পাওয়ার অনিশ্চয়তা দূর হয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয় ও সিজিএ অফিস সূত্রে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

এর আগে ঈদ-উৎসব ভাতা প্রসঙ্গে ১৫ জুন অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এক নির্দেশ দেয়া হয়। সেখানে বলা হয়, ‘পবিত্র ঈদুল ফিতর, ২০১৬-এর উৎসব ভাতা জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী জুন ২০১৬ মাসের মূল বেতনের ভিত্তিতে প্রদানের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল। এ ভাতা ১ জুলাই ২০১৬-এর পূর্বে উত্তোলন যোগ্য’।

এ নির্দেশে কোথাও অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিষয়ে কোনো কিছু উল্লেখ ছিল না। ফলে সিজিএ অফিস থেকে তাদের নতুন বেতন স্কেলে বোনাস দেয়া বন্ধ রাখে। এতে অনিশ্চিত হয়ে পড়ে অবসরপ্রাপ্ত ও পেনশনভোগী সাড়ে ৪ লাখ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর নতুন বেতন স্কেলে ঈদ বোনাস পাওয়া। এমন পরিস্থিতিতে পরিবার নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তায় পড়েন অবসরে যাওয়া এ বিপুলসংখ্যক সরকারি চাকরিজীবী।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধতন এক কর্মকর্তা বলেন, অর্থ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের আলোকে পেনশনভোগীরাও ঈদ বোনাস নতুন বেতন স্কেল অনুযায়ী পাবেন। এ নিয়ে কোনো জটিলতা হওয়ার কথা নয়। কিন্তু এরপরও মাঠপর্যায় থেকে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সিজিএ অফিসের তথ্য মতে, বর্তমান অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সংখ্যা ৪ লাখ ৫৩ হাজার ১৪৮ জন। অধিকাংশ কর্মকর্তা ও কর্মচারী ঢাকার বাইরে বিভিন্ন বিভাগে অবস্থান করেন।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, অবসরে যাওয়া চাকরিজীবীদের ভাতা ও আনুতোষিক দেয়ার জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে ১৬ হাজার ৯১৬ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

গত বছরের ১ জুলাই থেকে অষ্টম বেতন স্কেল কার্যকর করা হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে শুধু মূল বেতন পাচ্ছেন সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। আর নতুন বেতন স্কেলে সব ধরনের ভাতা ও বোনাস চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে। অর্থাৎ নতুন বেতন স্কেলে এ বছর ঈদুল ফিতরের বোনাস পাবেন তারা। অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা একই সুবিধা ভোগ করবেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই