মেইন ম্যেনু

নাকচ করেও ১ ঘণ্টার মধ্যেই অর্থছাড় দিয়েছিল ফেডারেল

সন্দেহজনক বিবেচনায় আটকে দেয়ার এক ঘণ্টার ব্যবধানে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা পাঠানোর অনুমতি দেয় যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্ক কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার (৩ জুন) ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক ও বাংলাদেশ ব্যাংকের দুই কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের গোপন সুইফট ম্যাসজিং সিস্টেম ব্যবহার করে দুর্বৃত্তরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বিপুল অংকের টাকা পাঠাতে ৩৫টি অনুরোধপত্র পাঠায় যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ব্যাংকটিকে। গত ৫ ফেব্রুয়ারি এসব অনুরোধপত্র পাঠানো হয়। অনুরোধপত্রের স্বপক্ষে নির্ভুল তথ্য-প্রমাণ না থাকায় প্রথমে পেমেন্ট আটকে দেয় ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক।

প্রথমে প্রত্যাখ্যান করলেও এক ঘণ্টার ব্যবধানে ৫ অনুরোধপত্রের বিপরীতে ১০১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ফিলিপাইন ও শ্রীলংকায় পাঠানোর অনুমতি দেয়। এ টাকার ৮১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার পাঠানো হয় ফিলিপাইনের রিজাল ব্যাংকের মাকাতি সিটির জুপিটার শাখায় ব্যবসায়ী কিং অংয়ের অ্যাকাউন্টে। বাকী ২০ মিলিয়ন ডলার পাঠানো হয় শ্রীলংকাভিত্তিক বেসরকারি সাহায্য সংস্থা শালিকা ফাউন্ডেশনের অ্যাকাউন্টে।






মন্তব্য চালু নেই