মেইন ম্যেনু

নারকেল তেলের ভিন্ন ৭ ব্যবহার আপনি জানেন কি?

চুলের যত্নে নারকেল তেলের ব্যবহার হয়ে আসছে সেই আদি যুগ থেকে। চুলকে ঘন কালো করতে নারকেল তেল ব্যবহার করা হয়। নারকেল তেল কি শুধু চুলের যত্নে ব্যবহার করা হয়? দৈনন্দিন নানান কাজে এই তেল ব্যবহার করা যায়। নারকেল তেল আমাদের দেহে ছত্রাক, প্রদাহজনক সমস্যা, ব্যাকটেরিয়া ইত্যাদি আরও নানা ধরণের সমস্যা রোধ করতে সাহায্য করে। শুধু তাই নয়, ঘরোয়া নানা সমস্যা সমাধান করে থাকে এই নারকেল তেল। চলুন তাহলে আজকে জেনে নেয়া যাক নারকেল তেলের ভিন্নধর্মী কিছু ব্যবহার।

১। মেকআপ তুলতে

মেকআপ নারীর অন্যতম অনুষঙ্গ। আর এই মেকআপ তোলার কাজে ব্যবহার করে থাকেন মেকআপ রিমুভার। এই মেকআপ রিমুভারের কাজ করবে নারকেল তেল। একটি তুলোর বলে নারকেল তেল লাগিয়ে নিন। এটি পুরো ত্বকে ম্যাসাজ করে মেকআপ তুলে ফেলুন।

২। হজমের সমস্যা দূর করতে

নারকেল তেলে কিছু উপকারি ফ্যাট রয়েছে। এর অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান পাকস্থলির ইনফেকশন দূর করে। ফলে হজমের সমস্যা দূর হয়।

৩। মশা দূরে রাখতে

মশার উপদ্রবে বিরক্ত? আবার ঘরে মশা তাড়ানোর কিছু নেই? তাহলে এক কাজ করুন। কয়েক ফোঁটা নারকেল তেলের সাথে পুদিনার এসেনশিয়াল অয়েল অর্থাৎ মিন্ট এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিন এরপর তা ত্বকে ব্যবহার করুন। মশা আপনার থেকে দূরে থাকবে।

৪। দাগ দূর করতে

কার্পেটের জেদী দাগ দূর করতে নারকেল তেল বেশ কার্যকর। কার্পেটের দাগের উপর কিছু পরিমাণ নারকেল তেল দিন। তারপর ঘষুন। এছাড়া নারকেল তেলের সাথে বেকিং সোডা মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। এটি দ্রুত দাগ দূর করে দেবে।

৫। ত্বক ময়েশ্চারাইজ করতে

ত্বক ময়েশ্চারাইজ করতে নারকেল ব্যবহার করা হয়। লোশন ব্যবহার না করে ত্বকে নারকেল তেল ব্যবহার করতে পারেন। এটি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে। এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান ত্বকের জ্বালাপোড়া এবং রিংকেল দূর করে দেয়।

৬। এ্যার্নাজি বৃদ্ধিতে

খাবার উপযুক্ত নারকেল তেল প্রতিদিন খেলে তা দেহের এনার্জি বৃদ্ধি করে। এছাড়া নারকেল তেলের থাকা অ্যাসিড মস্তিষ্ক রিল্যাক্স করতে সাহায্য করে। তবে রান্নায় বিশুদ্ধ নারকেল তেল ব্যবহার করা উচিত।

৭। আফটার শেভ লোশনের পরিবর্তে

শেভ করার পর দেখলেন হঠাৎ দেখলেন আফটার শেভ লোশন শেষ, তখন কী করবেন? এই সমস্যার সহজ সমাধান করে দেবে নারকেল তেল। শেভ করার পর লোশনের মত এটি ব্যবহার করুন।






মন্তব্য চালু নেই