মেইন ম্যেনু

নারীদের নিরাপত্তায় থাকা পুলিশেরই যৌনবিকৃতি!

ভারতের রাজ্যগুলোর মধ্যে নারীদের জন্য সবচেয়ে নিরাপদ বলে পরিচিত গুজরাট। এই রাজ্যের সর্ববৃহৎ শহর আহমেদাবাদ। সেখানেই এক মেলার ভিড়ের মধ্যে নারীদের দেহে হাত দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে আশঙ্কার বিষয় হলো এই অভিযোগের তীর মানুষের রক্ষক বলে পরিচিত পুলিশেরই বিরুদ্ধে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে জানা গেছে, গত ২৫ থেকে ৩১ ডিসেম্বর আহমেদাবাদে অনুষ্ঠিত হয় কানকারিয়া উৎসব। রাজ্য সরকার আয়োজিত উৎসব ভালোভাবে চললেও সম্প্রতি এক ভিডিওচিত্র ইন্টারনেটে ঝড় তোলে। ওই অসমর্থিত ভিডিওতে দেখা গেছে পুলিশের পোশাক পরিহিত এক ব্যক্তি রাস্তার পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন এবং ইচ্ছেকৃতভাবে আশপাশে থাকা নারীদের শরীর স্পর্শ করছেন। এভাবে বেশ কিছুক্ষণ চলার পর ওই পুলিশ সদস্য লেকের পারে একটি স্থানে বসেন।

আহমেদাবাদ পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা, মেলায় পুলিশ সদস্যের দ্বারা নারীদের শরীরে হাত দেওয়ার বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। তবে সমস্যা হয়েছে অন্যখানে, কোনোভাবেই দায়ী পুলিশ সদস্যকে চিহ্নিত করা যাচ্ছে না। পুরো ভিডিওচিত্রে কোথাও পুলিশ সদস্যের মুখাবয়ব দেখা যায়নি। তবে তারপরও থেমে নেই অভিযান।

পুলিশ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যকে ধরতে মেলার দিন দায়িত্বে থাকা সব পুলিশের তালিকা নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া মেলায় থাকা ২৫টি সিসি টিভির ক্যামেরার ফুটেজও নেওয়া হচ্ছে।

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর জানিয়েছে, ভিডিও ও অন্যন্য সূত্র ধরে দোষী পুলিশ সদস্যকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।



(পরের সংবাদ) »



মন্তব্য চালু নেই