মেইন ম্যেনু

নারীদের যে জিনিষগুলোই নিষিদ্ধ সৌদি আরবে!

সৌদি আরব! মুসলিমদের জন্যে বেশ আকর্ষণের একটা নাম। কিন্তু ব্যাপারটা হয়তো ততোটা আকর্ষণীয় আর লাগবে না আপনার কাছে যখন আপনি শুনবেন দেশটির পদে পদে কতোটা নিষেধাজ্ঞা। বিশেষ করে নারীদের জন্য! আসুন জেনে নিই সৌদি আরবে বহাল থাকা সাধারণ বিষয়ের উপর এমনই কিছু নিষেধাজ্ঞার কথা।

১. ভালোবাসা দিবস

সৌদি আরবে আর কোনো দিন যেটাই হোক ভালোবাসা দিবস, অর্থাৎ, ১৪ই ফেব্রুয়ারীতে কোনো দোকানে লাল গোলাপ বিক্রয় করা, হৃদয়াকৃতির কিছু রাখা নিষিদ্ধ। সেটা না মানলে তৎক্ষণাৎ ধর্মীয় পুলিশ গিয়ে বাধ্য করে দোকানটি বন্ধ করতে। এই দিনে মেয়েরা কোনো ধরনের লাল রঙয়ের কাপড় পরিধান করতে পারে না। আর করলেও তখুনি গিয়ে সেটাকে পাল্টে আসতে হয়! বিয়ে বহির্ভূত কোনো সম্পর্ক যাতে না হয় সেজন্যেই এত ব্যবস্থা সৌদি সরকারের।

২. সামাজিকতা

সামাজিকভাবে সৌদি আরবে মহিলা আর পুরুষদেরকে দুই ভাগে ভাগ করে ভিন্ন ভিন্ন আচরণ করা হয়। বিশেষ করে শপিং মলগুলোতে হয় মহিলা নিজে অথবা পুরুষ গেলেও মহিলা সহ গেলে তবেই ঢুকতে পারবেন। একই ব্যাপার খাবার রেস্তোরাগুলোতেও। যদিও বাইরের দেশের মানুষদের জন্যে এ নিয়ম নেই।

৩. মুভি থিয়েটার

সৌদি আরবে মুভি থিয়েটার নিষিদ্ধ। করণ এতে করে নারী-পুরুষের সাথে মেলামেশার সুযোগ বেড়ে যায়। আর তাই সৌদির দ্বীপগুলোর কাছে যারা বসবাস করেন প্রতি ছুটিতে তারা বাহরাইনে চলে যান। মুভি আর মদ্যপান দুটোই করে আবার ফিরে আসেন দেশে। কারণ, সৌদিতে মদও নিষিদ্ধ!

৪. শূকর

সৌদি আরবে খাবারের ক্ষেত্রে হালাল-হারামের ব্যাপার তো আছেই। তবে পবিত্র স্থান হওয়ায় এখানে কোন শূকর প্রবেশ নিষিদ্ধ। সে জীবন্তই হোক কিংবা প্লেটে সাজানো। এখানকার সবজায়গাতেই শূকর নিষিদ্ধ ধরনের সাইন দেওয়া থাকে।

৫. গানের প্রতিষ্ঠান ও নারীদের খেলাধুলা

গান নিষিদ্ধ না হলেও সৌদির কোন প্রতিষ্ঠানেই গান বা সুর শেখানো হয় না। কারণ তারা অনেক বেশি ইসলামিক নিয়ম মেনে চলার চেষ্টা করে প্রতিষ্ঠানগুলোতে। গান শিখতে হলে ঘরে শিক্ষক রেখে কিংবা দেশের বাইরে গিয়ে শিখতে হয়। এছাড়াও সৌদিতে কোন নারী দল নেই। খেলার মাঠে নারীরা নিষিদ্ধ। আর তাই বেশ কিছুদিন ধরে অলিম্পিকেও নিষিদ্ধ সৌদি আরব।

৬. নারীদের প্রতি নিষেধাজ্ঞা

সৌদি আরবে কোন নারীই কাজ করতে যেতে পারেন না। তবে কিছুদিন হল ডিপার্টমেন্টাল স্টোরগুলোতে তাদেরকে কাজ দেওয়া শুরু করেছে সরকার। এছাড়াও ৪৫ বছর বয়সের আগে কোন নারীই অভিভাবক ছাড়া কিংবা তাদের সাক্ষর করা অনুমতিপত্র ছাড়া বাইরে যেতে পারেন না। আইন তাদেরকে এক্ষেত্রে আটকিয়ে দেয়। শুধু তাই নয়, কেবল ঘরের ভেতর আর মরুভূমিতে ছাড়া নারীরা গাড়ি চালালেও সেটা দন্ডনীয় অপরাধ সৌদি আরবে!

৭. অন্য ধর্ম

সৌদিতে ইসলাম ছাড়া অন্য ধর্মের কোন উপাসনালয় নেই। সেখানে অন্য ধর্মের উপাসনাও প্রকাশ্যে করা যায়না। কেবল তাই নয়, কেউ ধর্ম পরিবর্তন করতে চাইলে, আর সেটা যদি হয় ইসলাম থেকে অন্য কোন ধর্ম, তাহলে তার একমাত্র শাস্তি এখানে দেওয়া হয় মৃত্যু!






মন্তব্য চালু নেই