মেইন ম্যেনু

নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িতে ফের আগুন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও যুবলীগ সভাপতি অঞ্জন কুমার দেবের বাড়িতে ফের আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে আগুন দেয়া হয়। এর আগে গত ৫ নভেম্বর অঞ্জন কুমারের দত্তপাড়ার বাড়িতে আগুন দিয়েছিল দুর্বৃত্তরা। ১৬ দিন পর আজ আবারও তার বাড়িতে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটল।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যা ছয়টার দিকে দুর্বৃত্তরা অঞ্জন কুমারের একটি ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। ঘরটি গরু ও লাকড়ি রাখার কাজে ব্যবহৃত হতো। আগুনে লাকরি ও ঘরের কিছু অংশ পুড়ে যাওয়া ছাড়া তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। খবর পেয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জাফর ও থানা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তা এস এম শামীম ঢাকাটাইমসকে বলেন, ভাইস চেয়ারম্যানের বাড়িতে আগুন দেয়ার ব্যাপারে আমরা কিছুই জানি না। এ ব্যাপারে আমাদের কেউ কিছুই জানায়নি।

জানতে চাইলে নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জাফর বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থলে আছি। আপাতত ব্যস্ত আছি। এখন আর কথা বলতে পারবো না। পরে ফোন দেন।’

গত ২৮ অক্টোবর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নে এক যুবকের ফেসবুক পেজ থেকে পবিত্র কাবাঘরের একটি বিতর্কি ছবি পোস্ট দেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় বহু ঘর বাড়িতে একের পর পর আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে।

ফেসবুকে ঐ ছড়ি ছড়িয়ে পড়লে পরদিন নাসিরনগর সদর উত্তাল হয়ে পড়ে। ৩০ অক্টোবর উপজেলা সদরের কলেজ মোড়ে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ হয়। সমাবেশের পর বেশ কয়েকটি মন্দির ও শতাধিক হিন্দুদের বাড়িতে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।
হামলার পর মোট চারটি মামলা করা হয়। এর মধ্যে মন্দিরের পুরোহিত বাদী হয়ে দুটি এবং পুলিশ বাদী হয়ে দুটি মামলা করেন। চার মামলায় মোট দুই হাজার ৮০০ জনকে আসামি করা হয়। এর মধ্যে পুরোহিতের করা মামলায় দুই হাজার ৫০০ এবং পুলিশের মামলায় ৩০০ জনকে আসামি করা হয়। ঘটনার পর থেকে গ্রেপ্তার আতঙ্কে ওই এলাকা পুরুষশুন্য হয়ে যায়।

ঘটনা তদন্তে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন থেকে আলাদা দুটি এবং পুলিশ সদর দপ্তর থেকে একটি তদন্ত দল গঠন করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই