মেইন ম্যেনু

নিউমার্কেট এলাকায় ব্যবসায়ী-ছাত্র সংঘর্ষ

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের ছাত্রদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে এনেছে পুলিশ। বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে পরিস্থিতি শান্ত হওয়ার পর যানবাহন চালাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

এ ঘটনায় নুরুল ইসলাম (৪০) নামে এক ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন। তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া ঢাকা কলেজের ব্যবস্থানা বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র শান্ত (২০), পথচারী হামিদা বেগম (২৫) এবং হকার রনি (২৬) নামে আরো তিনজনকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তাদের শরীরে ও মাথায় গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ছাত্র ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়ে থেমে থেমে হামলা-পাল্টা হামলার মধ্যে তা চলতে থাকে। বিকেলে সাড়ে ৫টার দিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে বলে জানায় নিউমার্কেট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আরাফাত হোসেন।

ধানমন্ডি জোনের পুলিশের সহাকারী কমিশনার রেজাউল ইসলাম জানান, নিউমার্কেট এলাকার নূরজাহান মার্কেটে কেনাকাটার সময় দোকানদারের সঙ্গে ঢাকা কলেজের এক শিক্ষার্থীর ঝগড়া হয় এবং এ থেকেই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। তবে পরিস্থিতি এখন শান্ত।

তবে সংঘর্ষের কারণ সম্পর্কে আরাফাত হোসেন জানান, বুধবার রাতে দীপু নামে এক ব্যবসায়ীকে গুলি করার অভিযোগ এনে নিউমার্কেট এলাকার ব্যবসায়ীরা ঢাকা কলেজের ছাত্রদের দোষ দেয়। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার ঢাকা কলেজের ক্ষুব্ধ ছাত্রদের সঙ্গে ফুটপাতে বসা কয়েকজন ব্যবসায়ীর বাকবিতণ্ডা হয়। এ সময় তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

এদিক ছাত্র-ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের সময় উভয় পক্ষ ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। কয়েকটি বাস ও মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। এ ছাড়া সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে ছাত্ররা। এসব কারণে নিউমার্কেট এলাকায় ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হয়। তবে যান চলাচল এখন স্বাভাবিক হয়ে এসেছে।






মন্তব্য চালু নেই