মেইন ম্যেনু

নিখোঁজ বিউটিকে ফিরে পেতে ব্যাকুল বাবা-মা

নিখোঁজ মেয়ে বিউটিকে ফিরে পেতে ব্যাকুল হয়ে উঠেছেন এক বাবা-মা। সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া উপজেলার সোনাবাড়ীয়া গ্রামের বাসিন্দা তারা।

জানা গেছে, ২০১০ সালে নিখোঁজ হয় বিউটি খাতুন নামে একটি মেয়ে। তারপর থেকে আজও পর্যন্ত তার কোনো হদিস পাওয়া যায়নি। তবে তার বিয়ে হয় ভারতের দত্তপাড়ার মোবারক আলীর ছেলে মোহর আলীর সাথে। তার স্বামী পেশায় একজন ড্রাইবার। স্বামীর সাথে বছর খানিক সংসার করার পর দত্তপাড়া থেকে হঠাৎ নিখোঁজ হয় বিউটি খাতুন।

buiti khatun sonabaria

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ব্যক্তি আওয়ার নিউজ বিডিকে জানান, বিউটি খাতুনের স্বামীর যোগসাযসে তাকে হয়তো ভারতে (বারে) পাচার করা হয়েছে। আবার অনেকে দ্বিমত পোষন করে বলেন, হয়তো কোনো কারণে বিউটিকে হত্যা করা হতে পারে।

ঘটনাটি বাহিরে রাষ্ট্রে হওয়ার কারণে বিউটি খাতুনের পরিবার আরো অসহায় হয়ে পড়েছে। তাকে উদ্ধারে তারা তেমন কিছুই করতে পারছে না। এমতাবস্থায় বিউটি খাতুনের উদ্ধানের জন্য তার পবিবার প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

যদি কোন স্বহৃদয়বান মেয়েটির কোন রকম খোঁজ পান তাহালে নিন্মে এই ঠিকানায় যোগাযোগ করবেন।
মোবাইলঃ ০১৭২৮-৯০৫১৯৯, ০১৭৬১-৯১৪৮০৮

বাপের বাড়ি

মোছা: বিউটি
পিতা:মো: রুস্তম আলী সরদার।
মাতা:মোছা: রোকেয়া খাতুন।
গ্রাম:সোনাবাড়িয়া।
পো:সোনাবাড়িয়া।
থানা:কলারোয়া।
জেলা:সাতক্ষীরা।
বাংলাদেশ

শুশুরবাড়ি

মো:মোহর আলী
পিতা মো:মোবারক আলী।
গ্রাম: দত্তপাড়া।
পো:দত্তপাড়া।
থানা: সুরুপনগর।
জেলা: উত্তর চব্বিশ পরগনা।
ভারত

19.pdf






মন্তব্য চালু নেই