মেইন ম্যেনু

নিজামীর রায়ের কপি ট্রাইব্যুনালে

মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর আপিলের রায়ের কপি ট্রাইব্যুনালে পৌঁছেছে। সোমবার বিকেল ৫টার দিকে সুপ্রিম কোর্টের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার অরুণাভ চক্রবর্তীর নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল রায়ের কপি নিয়ে যান।

ট্রাইব্যুনালের আনুষ্ঠানিকতা শেষে রায়ের কপি কারাগারে পাঠানো হবে। এরপর রায়ের কপি কারাগারে পৌঁছার পর শুধু রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার সুযোগ পাবেন নিজামী। সে ক্ষেত্রে তার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগের দোষ স্বীকার করে নিয়ে ক্ষমার আবেদন করতে হবে।

অবশ্য মতিউর রহমান নিজামীও ক্ষমা চাইছেন না বলে জামায়াত ও নিজামীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

নিজামীর বিচারপ্রক্রিয়া

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে করা একটি মামলায় ২০১০ সালের ২৯ জুন নিজামীকে গ্রেফতার করা হয়। একই বছরের ২ আগস্ট মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। ট্রাইব্যুনালে বিচার প্রক্রিয়া শেষে ২০১৪ সালের ২৯ অক্টোবর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল নিজামীকে মৃত্যদণ্ডে দণ্ডিত করেন।

ওই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে তার করা আপিলের রায় ঘোষণা করা হয়। সেই রায়েও মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকে। আপিলের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয় ১৫ মার্চ। আর ২৯ মার্চ রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করেন নিজামী। ৩ মে শুনানি শেষে ৫ মে রায়ের দিন নির্ধারণ করা হয়। সেদিন আপিল বিভাগ তার রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ করে দেন।






মন্তব্য চালু নেই