মেইন ম্যেনু

নিজেকে খুশি রাখতে চান? জীবন থেকে বাদ দিন এই ব্যাপারগুলো…

একেকজন মানুষ একেকভাবে নিজের খুশিকে খুঁজে নেন। কারো কাছে রান্না করাটাই খুশি থাকার উপায়, কেউ খুশি থাকেন ভ্রমণ বা সম্পদে, আবার কারো খুশি মিলে যায় অফিসেরর ডেস্কে থাকা উঁচু ফাইলগুলোর ভেতরে। কিন্তু এতকিছুর পরেও কি সত্যিকারের খুশি থাকতে পারেন কেউ? না, কিছু ব্যাপার সবসময়, সবাইকেই নাড়া দিয়ে যায়। এতসব খুশির মাঝেও এনে দেয় বিষাদের ঘোর। কী করে তাহলে নিজের জীবনে আনবেন সত্যিকারের খুশি? খুব সোজা। আজকেই আপনার জীবন থেকে বাদ দিয়ে দিন কিছু বিষয়কে আর খুঁজে নিন পরিপূর্ণ খুশি। কী সেই বিষয়গুলো?

১. বর্তমানেই খুশি থাকবেন এমনটা চিন্তা করা বাদ দিন

অনেক সময় বলা হয় যে বর্তমানে বেঁচে থাকুন কিংবা বর্তমানেই খুশি থাকুন। কিন্তু একটা কথা সবসময় মনে রাখবেন যে, আপনার একটা ভবিষ্যতও আছে। আপনি যদি মনে করেন যে বর্তমানটাই সব আর বর্তমানে যেমনটা আছেন আপনি তেমনভাবেই খুশি থাকবেন তাহলে এখন ভালো থাকলেও ভবিষ্যতে ভালো নাও থাকতে পারেন আপনি। কারণ, আপনি বর্তমানের কোন ব্যাপারে খুশি খুঁজে পান আর সেটা ছাড়া আপনার মন খারাপ হয়ে যায়, তারমানে এই না যে সেই জিনিসটা সবসময় আপনার থাকবে। তাই বর্তমানে খুশি থাকুন। তবে বর্তমানে যেভাবে আছেন আপনার খুশির জন্যে সবসময় সবকিছু যে সেভাবেই থাকতে হবে সেটা ভাবা বন্ধ করে দিন।

২. নিয়ন্ত্রণের বাইরের ব্যাপারকে সরিয়ে দিন

কোন একটা জিনিসকে আপনি খুবই ভালোবাসেন আর সেটা খুব বেশি করে চান। কিন্তু প্রতিনিয়ত আপনি বুঝতে পারছেন যে সেই জিনিসটি আপনার হবার নয়। ধিরে ধিরে সবকিছুই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে আর আপনি নিজের সর্বোচ্চ চেষ্টা করছেন সবকিছুকে নিয়ন্ত্রণে আনার। আবার আগের মত সবকিছু করে ফেলার। আসলেই কি সেটা হওয়ার? আপনার খুশি থাকার জন্যে যে জিনিসটা চাইছেন সেটাই আপনার খুশিকে ছিনিয়ে নিচ্ছে নাতো? যদি তাই হয় তাহলে সেই বিষয়টিকে সোজা ভাষায় সরিয়ে দিন আপনার জীবন থেকে।

৩. অতীতের মানুষগুলোকে অতীতেই থাকতে দিন

অতীতে কোন একটা বিষয়ে হয়তো কষ্ট পেয়েছিলেন আপনি কারো কাছ থেকে, কেউ হয়তো আপনার বিশ্বাস ভঙ্গ করেছে, কোন খুব কাছের বন্ধুর সাথে হয়তো ছাড়াছাড়ি হয়ে গিয়েছে। এখনো কি সেসব বিষয়গুলো মাথায় ঘোরাফেরা করে আপনার? আপনি ভাবলেই কি তারা ফিরে আসবে? কমে যাবে আপনার কষ্ট? যদি তারা আর ফিরে আসবার না হয় তাহলে সেই মানুষগুলোকে অতীতে রেখে বর্তমানে পা বাড়ান।

৪. নিজেকে খুশি রাখার চেষ্টা বাদ দিন

সবকিছুকে এভাবে হঠাত্ করে ছেড়ে দেওয়া খুবই কঠিন। এটা কেবল আপনার জন্যেই নয়, আরো অনেকের জন্যে। একদিক দিয়ে খুশি থাকার জন্যে কিন্তু কষ্টকেও অনুভব করা দরকার। তখনই আপনি সত্যিকারের খুশিকে অনুভব করতে পারবেন যখন কিনা কষ্ট পেলে কেমন লাগবে সেটা জানবেন। তাই কেবল খুশি নয়, কষ্টকেও জায়গা করে দিন নিজের জীবনে। খুশি থাকার চেষ্টা করা সবসময় বাদ দিন। খুশি থাকার জন্যেই!






মন্তব্য চালু নেই