মেইন ম্যেনু

নিজের অজান্তেই হৃদপিণ্ডের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর যে কাজগুলো প্রতিদিন করছেন আপনি !

হৃদপিণ্ড আমাদের দেহের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ। হৃদপিণ্ডের মাধ্যমেই আমাদের পুরো দেহে সঠিকভাবে রক্ত সঞ্চালিত হচ্ছে। হৃদপিণ্ড রক্ত সঞ্চালন বন্ধ করে দিলে আমরা এক সেকেন্ডও বেঁচে থাকতে পারতাম না। কিন্তু এই অতি জরুরী অঙ্গটির যত্নে কি করছেন আপনি? কিছুই নয়, বরং প্রতিনিয়তই আপনার কাজে ক্ষতি হচ্ছে হৃদপিণ্ডের। এমন কিছু কাজ করছেন যা আপনার অজান্তেই অপূরণীয় ক্ষতি করছে আপনার হৃদপিণ্ডের। হয়তো বুঝতে পারবেন এমন সময় গিয়ে যখন আপনার হাতে সময় থাকবে না একেবারেই। সুতরাং সতর্ক হওয়ার সময় এখনই।

১) আপনার দাঁত ও মুখ অপরিষ্কার
আলসেমি করে রাতে দাঁত মাজলেন না, বা অপরিষ্কার মুখেই চলছেন আপনি। কিন্তু আপনি জানেন কি এই অপরিষ্কার মুখের কারণে আপনার দাঁতই নয় ক্ষতি হচ্ছে আপনার হৃদপিণ্ডেরও। গবেষণায় দেখা যায় যাদের মুখ অপরিষ্কার থাকে তারা হার্টের অসুখের ঝুঁকি অনেক বেশি থাকে।

২) আপনি রাতে ঘুমান না
অনেকেই ইচ্ছে করেই রাত জেগে থাকেন, আবার কেউ কেউ কাজের জন্য। কিন্তু আপনার এই কাজটি হৃদপিণ্ডের রোগের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিচ্ছে প্রতিনিয়ত। রাতে ঘুম না হওয়া, অনিদ্রা এবং ঘুম বারবার ভেঙে যাওয়া অর্থাৎ ঘুমের সমস্যার কারণে দেহে হরমোনের সমস্যা হচ্ছে। যার ফলে অপূরণীয় ক্ষতি হচ্ছে আপনার হৃদপিণ্ডের।

৩) আপনি অনেক বেশি বদমেজাজি
রাগ করা এবং অতিরিক্ত বদমেজাজ শুধুমাত্র আপনার ব্যক্তিত্বকেই নষ্ট করছে না, আর ফলে আপনার হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিও বাড়ছে। তাই নিজের রাগ, বদমেজাজ একটু নিয়ন্ত্রনে আনুন নিজের সুস্থতার জন্যই।

৪) ধূমপায়ীর সাথে থাকা
নিজে অসুস্থ হতে চান না বলে ধূমপান করেন না, কিন্তু আপনার বন্ধু-বান্ধবেরা করলে তার সাথেই থাকেন। এতে কিন্তু আপনার কোনো লাভ হচ্ছে না। ধূমপানের সময় সাথে থাকলে আপনার ফুসফুসেও ধোঁয়া ঢোকে যার কারণে আপনার হার্টের সমস্যা হচ্ছে।

৫) আপনার নেতিবাচক চিন্তা
শুনতে খুব অবাক হলেও আপনার হতাশা, বিষণ্ণতা, দুঃখ এবং জীবনের প্রতি নেতিবাচক মনোভাবের ফলে শুধু কাজেই বিফল হচ্ছেন না আপনি, নিজের হৃদপিণ্ডের স্বাস্থ্যও নষ্ট করছেন। গবেষণায় দেখা যায় যারা হতাশাগ্রস্থ ও বিষণ্ণতায় ভোগেন তারা অনেক বেশি হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিতে থাকেন।

৬) একেবারেই শারীরিক পরিশ্রম না করা
লক্ষ্য করলে দেখবেন একটু ধনী ব্যক্তিদেরই হার্টের সমস্যা বেশি হয়। ডাক্তারগণ বলেন এর মূল কারণ হচ্ছে একেবারেই শারীরিক পরিশ্রম না হওয়া। ঘরে থাকলে শুয়ে বসে থাকা, সব সময় গাড়িতে চলাচল, অফিসে বসে কাজ করা অর্থাৎ একেবারেই শারীরিক পরিশ্রম না হওয়ার কারণে হৃদপিণ্ডের সমস্যা বাড়ে। দিনে অন্তত ৩০ মিনিট শারীরিক পরিশ্রম হওয়া অত্যন্ত জরুরী।

সূত্রঃ হেলথ ডাইজেস্ট






মন্তব্য চালু নেই