মেইন ম্যেনু

নিজের গায়ে আগুন দিলেন কয়লা ব্যবসায়ী

সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে প্রকাশ্যে নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে দিলেন মঙ্গোলিয়ান কয়লা খনির ট্রেড ইউনিয়নের এক নেতা। মঙ্গলিয়ার কয়লা খনি চীনের কাছে বিক্রি করে দেয়ার প্রস্তাবে প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি এই ভয়ানক কাণ্ড করেছেন।

বেনামি এই ট্রেড ইউনিয়নের নেতা সম্প্রতি একটি সংবাদ সম্মেলনের ডাক দেন। সম্মেলনে তিনি এবং অন্যরা মিলে সাংবাদিকদের মঙ্গোলিয়ার কয়লা খনি নিয়ে যে সমস্যা তৈরি হয়েছে সেটার কথা বলেন।

সংক্ষিপ্ত এই সম্মেলনে তিনি অস্পষ্টভাবে বলেন, সরকার আর আমাদের কয়লা কোম্পানিকে কোনভাবে সাহায্য করছেন না। কর্মচারীদের পরিবারের মানুষ বাধ্য হয়ে না খেয়ে থাকছে। আর ঠিক এই কারণেই মঙ্গোলিয়ায় মানুষ এবং আমাদের সন্তানদের জন্য আমি নিজেকে আগুনে পুড়িয়ে মারব।

এরপর তিনি প্রথমে গায়ে জ্বালানি তেল ঢালেন এবং সবার সামনে আগুন ধরিয়ে দেন। এ ঘটনা চাক্ষুস করে সংবাদ সম্মেলনের সমস্ত মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। তার ইউনিয়নের বাকি সদস্যরা প্রথমে হতভম্ব হয়ে পড়লেও তড়িঘড়ি করে তাদের গায়ের জ্যাকেট খুলে সেটা দিয়ে আঘাত করে আগুন থামানোর চেষ্টা করেন। এইসময় পুড়তে থাকা ব্যাক্তির তীব্র চিৎকার শোনা যায়। এইভাবে কিছুক্ষন চলার পর একটা অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র দিয়ে আগুন পুরোপুরি থামানো হয়।

আগুনে পোড়া ব্যাক্তি মারাত্মক আহত হয়েছেন এবং বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উল্লেখ্য যে, এই ইউনিয়ন নেতা এরডেনেস তাভান তল্গি কোম্পানির কর্মীদের হয়ে প্রতিবাদ জানাচ্ছিলেন যাদের অধীনে মঙ্গোলিয়ায় ৩৯ টি কয়লা খনি রয়েছে। মঙ্গোলিয়ান সরকার এই কোম্পানিকে চীনদের কাছে বিক্রি করার প্রস্তাব দেয়ায় এই প্রতিবাদ জানানো হয়।






মন্তব্য চালু নেই