মেইন ম্যেনু

নিরাপত্তাঝুঁকি: সচিবালয়ে প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ

বাংলাদেশ সচিবালয়ের নিরাপত্তা ও সুষ্ঠু কর্মপরিবেশ বজায় রাখতে দর্শনার্থী পাশ কম দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে এখন থেকে পাশ ইস্যুকারী কর্মকর্তারা পাঁচটির বেশি পাশ দিতে পারবেন না। এর আগে তারা সর্বোচ্চ ১০টি পাশ ইস্যু করতে পারতেন।

বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গত ২৪ নভেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. মোজাম্মেল হক খান স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত চিঠি সকল মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিবের কাছে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ চিঠি পেয়েছে বলে জানা গেছে।

চিঠিতে একইসঙ্গে দর্শনার্থীর পূর্বপরিচয় নিশ্চিতকরণ, সোমবার বিকাল ৩টার আগে কোনো ধরনের সভা না আহ্বান করা, সচিবালয় প্রবেশ নীতিমালা ২০১৪সাল বহির্ভূত অস্থায়ী প্রবেশপত্র ও গাড়ি স্টিকার না দেওয়ার জন্য সকল মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে বাংলাদেশ সচিবালয়ের নিরাপত্তা ঝুঁকি হ্রাস পাবে ও সুষ্ঠু কর্মপরিবেশ বজায় থাকবে বলে চিঠিতে জানায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

চিঠিতে বলা হয়, বিপুল সংখ্যক দর্শনার্থী সচিবালয়ে প্রবেশ করায় এখানকার কর্মপরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। দর্শনার্থী পাশ নিয়ে সচিবালয়ে প্রবেশকারী ব্যক্তিদের তথ্য যাচাই করে দেখা গেছে, পাশ ইস্যুকারী কর্মকর্তা দর্শনার্থীকে চেনেন না। পূর্বপরিচয় নিশ্চিত না হয়ে দর্শনার্থী পাশ ইস্যু করার ফলে সচিবালয়ের নিরাপত্তা ঝুঁকি বেড়ে যাচ্ছে।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, প্রতি সোমবার মন্ত্রিসভা বৈঠক চলাকালে প্রধানমন্ত্রী সচিবালয়ে অবস্থান করেন। এ সময়ে সচিবালয়ে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বা বিভাগে সভা আহ্বান করা হয়ে থাকে। একান্ত অপরিহার্য না হলে সোমবার সভা আহ্বান বন্ধ করা আবশ্যক। সচিবালয়ের নিরাপত্তার স্বার্থে দর্শনার্থী প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ ও কমানো প্রয়োজন।

সচিবালয়ে কর্মরত স্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বা বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা প্রায় সাত হাজার। মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় যোগদান করতে প্রতিদিন তিন হাজার ব্যক্তি বা কর্মকর্তা সচিবালয়ে প্রবেশ করেন। সোমবার ছাড়া দৈনিক ১০টি করে প্রায় ১০ হাজার পাশ ইস্যু করা হয়। এ ছাড়া সচিবালয়ে প্রাধিকারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের আড়াই থেকে তিন হাজার গাড়ির ড্রাইভার প্রবেশ করেন। পাশাপাশি বিভিন্ন দপ্তর, সংস্থা, মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা সচিবালয়ে আসেন। এতে সচিবালয়ে প্রতিদিন প্রায় ২৫ হাজার লোকের সমাগম হয়।

উল্লেখ্য, পাশ ইস্যু করার ক্ষমতাপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা হলেন- যুগ্ম-সচিব, অতিরিক্ত সচিব, মন্ত্রী, উপদেষ্টা, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদ সচিব ও সচিবালয়ের অভ্যন্তরে অবস্থিত মন্ত্রণালয়, বিভাগের সিনিয়র সচিব, সচিবের একান্ত সচিব ও নিরাপত্তা-২ অধিশাখার কর্মকর্তা।






মন্তব্য চালু নেই