মেইন ম্যেনু

নিরাপত্তার শঙ্কা থাকলে কেউই সমাবেশের অনুমতি পাবে না

৫ জানুয়ারি রাজধানী দখলে রাখতে চায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। গণতন্ত্রের বিজয় দিবস হিসেবে দিনটি তারা উদযাপন করবে বলে আগে থেকেই ঘোষণা দিয়ে রেখেছে ক্ষমতাসীনরা। অপরদিকে দেশের বৃহৎ বিরোধী দল বিএনপি দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চায়। যদিও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) থেকে অনুমতি মেলেনি।

তবে রাজধানীতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কর্মসূচি সাংঘর্ষিক হলে কোনো দলকেই সমাবেশ করতে দেয়া হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে রোববার দুপুরে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এ কথা জানান আছাদুজ্জামান মিয়া। ডিএমপি নিউজের দুই বছর পূর্তি উপলক্ষে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সমাবেশের অনুমতির বিষয়ে ডিএমপির কমিশনারকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে প্রধান দু’দলই আবেদন করেছে। ৫ জানুয়ারি বিএনপি এবং আওয়ামী লীগ একই জায়গায় সমাবেশের অনুমতি চাওয়ায় সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিবেচনায় ডিএমপি এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। তবে সাংঘর্ষিক কোনো কর্মসূচি দেখলে, আমরা কাউকেই সমাবেশ করতে দেবো না। এ বিষয়ে প্রয়োজনে দুই দলের সঙ্গেই কথা বলা হবে।’

তিনি বলেন, ‘এ জন্য একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ডিএমপির রমনা জুনের ডিসি এবং রমনা থানার ওসিকে প্রধান করে ওই কমিটি গঠন করা হয়। তারা আমামীকাল প্রতিবেদন জমা দেবেন। প্রতিবেদন পেলেই সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’






মন্তব্য চালু নেই