মেইন ম্যেনু

‘নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত বিএনপি’

নির্বাচনকালীন একটি সহায়ক সরকার এবং নিরপেক্ষ পরিবেশ নিশ্চিত থাকলে বিএনপি সবসময় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা জানানো শেষে গণমাধ্যমের কাছে এই মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপির সহযোগী সংগঠন জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটির নেতা-কর্মীদের নিয়ে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন বিএনপি মহাসচিব।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনমুখী রাজনৈতিক দল। নির্বাচনে বিশ্বাস করে। তাই নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনী ক্ষেত্র যদি থাকে, সেক্ষেত্রে বিএনপি নির্বাচনের জন্য সব সময়ই প্রস্তুত।’

নির্বাচন হলেই দুটি দলের জনপ্রিয়তার পার্থক্য বোঝা যাবে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ দেশের মানুষের জন্য কী কাজ করেছে, আর কী না করেছে তার বিচার করবে জনগণ। একটি সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হলেই বোঝা যাবে জনগণ তাদেরকে (আওয়ামী লীগ) কোন জায়গায় রেখেছে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যতই বুঝতে পারছে যে, তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে, ততই গণতান্ত্রিক পরিবেশ-পরিসরকে আরো বেশি করে সংকুচিত করছে। একদলীয় শাসন ব্যবস্থাকে পাকাপোক্ত করছে।’

এ সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘বর্তমান সরকারের শাসনামলে অনেক শ্রমজীবী মানুষ মিথ্যা মামলায় নানাভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছে। শ্রমজীবী মানুষ শপথ নিয়েছে তারা আগামী দিনে আন্দোলন সংগ্রামে সামনের কাতারে থেকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করবে।’

এ সময় শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেইন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নাসিমসহ শ্রমিক দলের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই