মেইন ম্যেনু

নীরবের লাশ হস্তান্তর : মামলা করবেন না বাবা

ম্যানহোলে পড়ে শিশু ইসমাইল হোসেন নীরবের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নিহতের বাবা রেজাউল ও চাচা সেলিম ঢামেক ফরেনসিক বিভাগ থেকে লাশ গ্রহণ করেন। এ সময় নিহত নীরবের বাবা রেজাউল জানান, গ্রামের বাড়ি মাদারীপুরের পশ্চিম বনগাঁও এলাকায় লাশ দাফন করা হবে।

এর আগে বুধবার সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটে নীরবের ময়নাতদন্ত শুরু করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের সমন্বিত বোর্ড। এ বোর্ডের সদস্যরা হলেন ঢামেক হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান কাজী আবু সামা, ডা. কাজী শফিউজ্জামান, ডা. প্রদীপ বিশ্বাস ও ডা. খবির হোসেন।

এদিকে, ম্যানহোলে পড়ে শিশু ইসমাইল হোসেন নীরবের মৃত্যুর ঘটনায় কোনো মামলা করবেন না বলে জানিয়েছেন নিহত নীরবের বাবা রেজাউল। বুধবার সকালে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমার ছেলের মৃত্যুর ঘটনায় কাউকে দায়ী করছি না। আর এ ব্যাপারে কোনো মামলাও করব না।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমার সন্তানের মতো আর যেন কেউ এ রকম ঘটনার মুখোমুখি না হয়। আমি সরকারকে অনুরোধ করব, ঢাকায় যেন খোলা ম্যানহোল না থাকে।’ এ জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে ব্যবস্থা নেওয়ারও আহ্বান জানান তিনি।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার বিকেল পৌনে ৫টার দিকে রাজধানীর শ্যামপুর কদমতলী এলাকায় সুয়ারেজ লাইনে পড়ে যায় শিশু নীরব। দীর্ঘ সাড়ে তিন ঘণ্টা পর রাত ৮টা ২০ মিনিটে বুড়িগঙ্গা নদী থেকে উদ্ধার করা হয় তাকে। উদ্ধারের পরপরই নীরবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত নয়টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।






মন্তব্য চালু নেই