মেইন ম্যেনু

নীলফামারীতে জমি নিয়ে সংঘর্ষ ॥ নারীসহ আহত ১২

বসত ভিটার সীমানায় সুপারী গাছ রোপন করা নিয়ে চাচাতো ভাইদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলি ইউনিয়নের নয়নখাল গ্রামে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় এই ঘটনায় উভয় পরিবারের মধ্যে নারী সহ ১২ জন আহত হয়েছে।

আহতদের মধ্যে তৈয়ব আলীর দুই ছেলে আফজালুর ইসলাম(৪০) ও আতিয়ার রহমান(৩৫) কে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। অন্যান্য ১০জন কে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরা হলো মুরাদআলী(৪৮)-আইরিন(২৮)-আমিজন(৫৫)-রবিউল(৩৫)-খোকন(২০)-আনোয়ারা(৩৫)-এজাবুল ইসলাম(৫০)-অফিছার(৪৫)-আতোয়ারা((৪৫) ও জুলেখা (৩৪)।

ঘটনার বিবরনে জানা যায় ওই গ্রামের তৈয়ব আলীর ছেলেরা বসতভিটার সীমানায় সুপারী গাছ রোপন করে। এতে তৈয়রআলীর বড় ভাই মৃত তমছের আলীর ছেলে এজাবুল ইসলাম বাধা দেয়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোঠা নিয়ে সংঘর্ষ বাঁধে। ফলে উভয় পরিবারের মধ্যে ১২ জন আহত হয়।

এদের মধ্যে ৯জন তৈয়ব আলীর পরিবারের সদস্য ও মৃত তমছেরআলীর পরিবারের ৩ জন সদস্য রয়েছে। কিশোরগঞ্জ থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।






মন্তব্য চালু নেই