মেইন ম্যেনু

নড়াইলে খাদ্যে বিষক্রিয়ায় ৩ মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু

নড়াইল সদর উপজেলার জামিয়াতুস সুন্নাহ মোহাম্মাদীয়া কওমিয়া মাদরাসা ও এতিমখানায় খাবারের বিষক্রিয়ায় তিন ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ২০ ছাত্র অসুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে ১২ জনের অবস্থা গুরুতর।

নিহত ছাত্ররা হলেন-নড়াইলের বড়গাতি গ্রামের জব্বার হোসেনের ছেলে এমামুল হক (১৮), ভদ্রবিলা-পাঁচুড়িয়ার মুরাদ মিয়ার ছেলে আলিফ (৮) এবং শুভারগোপের আফসার শেখের ছেলে আশরাফুল।

মাদরাসার শিক্ষক ও ছাত্ররা জানান, বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে শাপলা এবং পুঁইশাকের দুই প্রকার তরকারি খেয়ে ছাত্ররা অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের নড়াইল সদর হাসপাতালে নেয়া হলে পথিমধ্যে দুই ছাত্র মারা যায়।হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার একজনকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকিদের অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মাদরাসার শিক্ষক ইব্রাহিম বলেন, ৩০ জন ছাত্র এবং কয়েকজন শিক্ষক মিলে আমরা একসঙ্গে রাতের খাবার খাই। খাবার খাওয়া শেষে ছাত্ররা বমি করা শুরু করেন। পরে তিনজনের মৃত্যু হয়। গুরুতর অসুস্থ ১২ জনকে যশোরে পাঠানো হয়েছে।

নড়াইল সদর হাসপাতালের চিকিৎসক অনিক সাহা বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে খাবারের বিষক্রিয়ায় তিন ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। অসুস্থ ছাত্রদের উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোরে পাঠানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই