মেইন ম্যেনু

পকেট চুলা বানিয়ে নিন বিনা খরচে (ভিডিও)

তরুণদের অনেকেই ভ্রমণে যেতে পছন্দ করেন। বিশেষ করে হাইকিং এবং ক্যাম্পিং এ যাওয়া রীতিমতো রোমাঞ্চকর। আউটডোরে গেলে নিজেদের খাবার নিজেদেরই তৈরি করতে হয়। খাবার রান্নার জন্য দরকার হয় চুলার। কিন্তু ভ্রমণের সময় মস্ত বড় চুলা বয়ে বেড়ানো ঝক্কির কাজ। ঝক্কি-ঝামেলা এড়াতে অনেকেই পকেট সাইজ চুলা দিয়ে রান্না বান্না সারেন। এই চুলা নিজেই বানিয়ে নিতে পারেন। এজন্য যেসব উপকরণ লাগবে তা সবখানেই পাওয়া যায়। বানানোও সহজ।

যা যা লাগবে

১. দুইটি কোক বা বিয়ারের খালি ক্যান

২. একটি কাঁচি

৩. একটি রঙিন মার্কার

৪. একটা প্লায়ার্স।

৫. একটি ক্লিপ বোর্ড পিন।

৬. লোহা ঘষার সিরিজ কাগজ

যেভাবে বানাবেন

প্রথমে খালি ক্যান দুইটি পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে নিন। এরপর ক্যান দুইটি যেখানে কাটতে চান সেখানে লাল রঙের মার্কার দিয়ে মার্ক করুন। ক্যানের নিচের অংশ থেকে ৩.৫ ওপর পর্যন্ত মার্ক করে কেটে নিলে ভালো হবে।

চুলা1

এখন দাগ  মার্কার দিয়ে মার্ক করা অংশ বরাবর কাঁচি দিয়ে কাটুন। বাকা বা অসমান কাটা হলে এটি একটার সাথে অন্যটা ঢুকাতে কষ্ট হবে। তাই কাঁচি দিয়ে সমান ভাবে কেটে ফেলুন।

এরপর একটা প্ল্যায়ার্স দিয়ে যে ক্যানের কাটা অংশটাকে আপনি উপরে রাখবেন এবং ফুটো করবেন সেটাকে হালকা ভাবে নিচের কাটার দিকটা মুচড়ে নিতে পারেন। এতে অন্য কাটা অংশটায় সহজে ঢোঁকাতে পারবেন। একটা ক্যান অন্যটার উপর বসিয়ে একটা কাপড় দিয়ে ধরে আস্তে আস্তে করে চেপে একটাকে অন্যটার মধ্যে ঢুকিয়ে দিন।

চুলা বানানোর প্রায় শেষ। এখন পেপার পিন / ক্লিপ বোর্ড পিন দিয়ে ছিদ্র করে নিন। ছিদ্র আপনি যদি চান আস্তে আস্তে খাবার না পুড়িয়ে রান্না করতে তাহলে অল্প মাত্র ৯টা করলেই হবে। আর টপ বা ফুয়েল দেয়ার জন্য মাঝখানে ৩টা। কিন্তু যদি চান বেশি তাপ এবং দ্রুত রান্না। তাহলে বেশি ছিদ্র করতে পারেন। ছিদ্র করার সময় অবশ্যই একটা ছিদ্র হতে অন্য ছিদ্রটার দুরত্ব যেন সমান হয়।

সিরিজ কাগজ দিয়ে ঘষে ঘষে এর রং তুলে একে সিলভার কালার করে ফেলুন। এটে স্টোভটা দেখতে সুন্দর লাগবে।

এখন চুলা বানানো শেষ। এটাকে ধরাবেন কি দিয়ে ? ফুয়েল হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন স্প্রিট যেটা কাঠের বার্নিশের জন্য আসবাবে ব্যবহার করা হয়। চাইলে আপনি থিনারও ব্যবহার করতে পারবেন।

তো প্রথমে স্টোভটাকে এমন স্থানে রাখুন যেখান থেকে অন্য কিছুতে আগুন ধরার সুযোগ নেই। এরপর পরিমান মত বা স্টোভের পুর্ণ করে ফুয়েল ( স্প্রিট / থিনার ) ভেতরে দিন। এরপর একটা কয়েন দিয়ে ছিদ্র গুলা বন্ধ করে আরেকটু ফুয়েল দিয়ে আশ পাশে একটু ছড়িয়ে দিয়ে আগুন দিন। ধরে যাবে। প্রথম বার না হলে আবার একই ভাবে চেষ্টা করুন।

ধরে গেল আপনার গ্যাসের চুলা। এবার রান্নার পালা। তবে পাতিল বা কড়াইয়ে রান্নার জন্য তিন পায়ের স্ট্যান্ডের প্রয়োজন হবে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই