মেইন ম্যেনু

পঙ্গু আসামিকে হাতকড়া পরানোয় তিন পুলিশকে ক্লোজড

আবুল হোসেন নামের দুই পা হারানো এক আসামিকে হাতকড়া পরানোয় তিন পুলিশকে দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার (ক্লোজড) করা হয়েছে। বুধবার সকালে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. আবদুল জলিল মণ্ডল এ আদেশ দেন।

প্রত্যাহার করা তিন পুলিশ হলেন- চট্টগ্রাম আদালতের মহানগর হাজতখানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাখাওয়াত হোসেন, যানবাহন শাখার উপপুলিশ পরিদর্শক (এটিএসআই) খোকন চন্দ্র মজুমদার ও কনস্টেবল শংকর দে।

প্রসঙ্গত, বুধবার প্রথম আলো পত্রিকায় ‘তাঁকেও হাতকড়া পরাল পুলিশ!’-এ শিরোনামে একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (প্রশাসন ও ট্রাফিক) এ কে এম শহীদুর রহমান বলেন, প্রথম আলোয় প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর পুলিশ কমিশনার তাৎক্ষণিকভাবে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী মুত্তাকী ইবনু মিনানের কাছে প্রতিবেদন চান। ওই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে হাজতখানায় দায়িত্বরত তিন পুলিশকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। আরও তদন্ত করে তিনজনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী মুত্তাকী ইবনু মিনান জানান, বুধবার সকাল থেকেই দায়িত্বে অবহেলার কারণে তিনজনকে হাজতখানার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে রাখা হয়। তাঁদের স্থলে নতুন লোক দেওয়া হয়েছে। পরে পুলিশ কমিশনার ওই তিনজনকে ক্লোজ করেন। তিনি আরো জানান, পুলিশ হেফাজত থেকে পালানোর সম্ভাবনা না থাকলেও গত মঙ্গলবার বাকলিয়া থানায় দায়ের করা মাদক মামলার আসামি আবুল হোসেনকে হাতকড়া পরিয়ে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। দুটি কাঠের টুকরার ওপর ভর দিয়ে এজলাসে যান তিনি। পঙ্গু আসামিকে এভাবে আদালতে হাজির করাকে অমানবিক এবং পুলিশ প্রবিধানের লঙ্ঘন বলে দাবি করেন এই আইনজীবী।

উল্লেখ্য, গত ২৭ জুলাই চট্টগ্রাম নগরের শাহ আমানত সেতু এলাকা থেকে এক হাজার ইয়াবা বড়িসহ আবুল হোসেনকে গ্রেপ্তার করে বাকলিয়া থানা পুলিশ।






মন্তব্য চালু নেই